বাংলা নিউজ > কর্মখালি > দিনে ১৮ ঘণ্টা কাজ করা উচিত্? দেখুন কী বলছেন রতন টাটার সহকারী শান্তনু
ছবি- লিঙ্কডইন (Linkedin)

দিনে ১৮ ঘণ্টা কাজ করা উচিত্? দেখুন কী বলছেন রতন টাটার সহকারী শান্তনু

Shantanu Calling Shantanu: যুবসমাজকে কর্মজীবনের প্রথম ৫-৬ বছর দিনে ১৮ ঘণ্টা করে কাজ করার পরামর্শ দেন শান্তনু দেশপাণ্ডে। এর বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। সেই স্রোতে সামিল হলেন শান্তনু নাইডু।

এক শান্তনুর ব্যাপারে মুখ খুললেন আরেক শান্তনু। বম্বে শেভিং কোম্পানির সিইও শান্তনু দেশপাণ্ডের বিতর্কিত মন্তব্য। তার বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া দিলেন শিল্পপতি রতন টাটার সহায়ক শান্তনু নাইডু। সম্প্রতি যুবসমাজকে কর্মজীবনের প্রথম ৫-৬ বছর দিনে ১৮ ঘণ্টা করে কাজ করার পরামর্শ দেন শান্তনু দেশপাণ্ডে। এর বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। সেই স্রোতে সামিল হলেন শান্তনু নাইডু।

একটি ভিডিয়ো বার্তায় শান্তনু নিজের ভাবনা জানান। তিনি বলেন, এই টক্সিক সংস্কৃতির প্রধান সমস্যা হল যে, এর ফলে কোনও ব্যক্তির মূল্য কেবল তার কৃতিত্ব এবং উত্পাদনশীলতায় নেমে আসে। আমি মনে করি মানুষ হিসাবে আমরা এর চেয়ে অনেক বেশি মূল্যবান। ২৮ বছর বয়সী শান্তনুর কথায় সহমত সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরাও।

কাজের পাশাপাশি, সম্প্রতি গুডফেলো নামে এক স্টার্টআপ চালু করেছেন শান্তনু নাইডু। তরুণদের সঙ্গে বয়স্ক, একা থাকা ব্যক্তিদের সংযুক্ত করে এই সংস্থা। তাতে বিনিয়োগ করেছেন রতন টাটা-ও। গুডফেলো সম্পর্কে বিশদে জানতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে। 

তিনি আরও বলেন, যাঁরা দিনে ১৮ ঘণ্টা কাজ করতে চান, তাঁরা তা করতেই পারেন। কিন্তু যুবসমাজের কাছে তা প্রচার করা খুব একটা ভাল কাজ নয়। আমাদের বুঝতে হবে যে, কেবলমাত্র কারও কাজ দিয়েই তার পরিচয় তৈরি হয় না।

দিনের শেষে আমাদের সম্পর্ক, ভালবাসা এবং অন্যদের জন্য আমাদের অবদানই আমাদের পরিচয়। আজ আমি কতটা কাজ করেছি, তাই দিয়ে আমার মূল্যায়ন হবে না।

প্রসঙ্গত, প্রবল বিতর্কের জেরে লিঙ্কডইন ছেড়েছেন বিতর্কিত সিইও শান্তনু দেশপাণ্ডে। এক টিভি সাক্ষাত্কারে শান্তনু বলেন, আমার পোস্টটি যাঁদের অনুভূতিতে আঘাত করেছে, তাঁদের কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। আমি আসলে আমার ভাবনাটা হয় তো সঠিকভাবে ব্যাখ্যা করতে পারিনি।

বন্ধ করুন