বাড়ি > কর্মখালি > Final term exam- পড়ুয়াদের বিপাকে ফেলে চূড়ান্ত টার্মের পরীক্ষা নয়, UGC-র নির্দেশ মানছে না বাংলা
ইউজিসি-র নির্দেশিকা মেনে চূড়ান্ত বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা আবশ্যিক করা সম্ভব নয়, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।
ইউজিসি-র নির্দেশিকা মেনে চূড়ান্ত বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা আবশ্যিক করা সম্ভব নয়, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

Final term exam- পড়ুয়াদের বিপাকে ফেলে চূড়ান্ত টার্মের পরীক্ষা নয়, UGC-র নির্দেশ মানছে না বাংলা

  • ইউজিসির নির্দেশিকার সব দিক নিয়ে আলোচনা করার পরে রাজ্য প্রশাসনের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, কোনও মতেই বর্তমান পরিস্থিতিতে এই পরীক্ষার আয়োজন করা সম্ভব নয়।

ইউজিসি-র নির্দেশিকা মেনে চূড়ান্ত বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা আবশ্যিক করা সম্ভব নয়। শিক্ষার্থীদের বিপাকে ফেলে পরীক্ষার আয়োজন করা যাবে না। সোমবার রাজ্যপালকে এই কথা জানাল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

এ দিন রাজ ভবনে গিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে দেখা করে ইউজিসি-র নির্দেশিকার জেরে রাজ্য সরকারের অবস্থান জানিয়ে আসেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, ইউজিসির নির্দেশিকার সব দিক নিয়ে আলোচনা করার পরে রাজ্য প্রশাসনের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, কোনও মতেই বর্তমান পরিস্থিতিতে এই পরীক্ষার আয়োজন করা সম্ভব নয়। 

রাজ্যপালকেও এ দিন পার্থ জানিয়েছেন, বর্তমান করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি ও আনুসঙ্গিক কারণে ইউজিসি-র নির্দেশ মেনে চূড়ান্ত টার্মের পরীক্ষার আয়োজন করা যাবে না। 

এর আগে কেন্দ্রীয় শিক্ষাবিদ কমিটির সুপারিশ মেনে চূড়ান্ত বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা নেওয়ার নির্দেশ জারি করে ইউজিসি। বাধ্যতামূলকভাবে পরীক্ষা নেওয়ার জন্য আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ও বেঁধে দেওয়া হয়। অনলাইন, অফলাইন বা উভয় মাধ্যমেই প্রক্রিয়ায় পরীক্ষার ছাড়পত্র মেলে। যে পড়ুয়ারা সেই পরীক্ষায় বসতে পারবেন না, পরে পরিস্থিতি অনুকূল হলে তাঁদের পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। 

পরীক্ষা বাতিলের আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লেখেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। বাধ্যতামূলক পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আর্জি জানায় পঞ্জাব, ওড়িশার মতো রাজ্য। দিল্লি সরকারের অধীনে থাকা কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা বাতিলও করে দেওয়া হয়। 

বন্ধ করুন