HT বাংলা থেকে সেরা খবর পড়ার জন্য ‘অনুমতি’ বিকল্প বেছে নিন
বাংলা নিউজ > ক্রিকেট > IND W Vs ENG W: শেষ ওভারে বদলে গেল ম্যাচের ছবি! শ্রেয়াঙ্কার ওভারে রোমাঞ্চকর লড়াই, ৩ রানে জিতল ভারত

IND W Vs ENG W: শেষ ওভারে বদলে গেল ম্যাচের ছবি! শ্রেয়াঙ্কার ওভারে রোমাঞ্চকর লড়াই, ৩ রানে জিতল ভারত

India A Women vs England A Women 1st T20I: ম্যাচের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর মুহূর্ত ছিল খেলার শেষ ওভারটি। শেষ ওভারে ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য ১৩ রান দরকার ছিল। বল করতে আসেন শ্রেয়াঙ্কা পাটিল। ওভারের প্রথম বলেই পাঁচটি অতিরিক্ত (ওয়াইড) রান দিয়ে বসেন। ফলে ইংল্যান্ডকে ম্যাচটি জিততে হলে শেষ ছয় বলে ৮ রান করতে হত।

শ্রেয়াঙ্কার ওভারে রোমাঞ্চকর লড়াই, ৩ রানে জিতল ভারত (ছবি:এক্স)

বুধবার ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতীয় মহিলা এ দল ৩ রানে জিতল। এই ম্যাচে একটি দর্শনীয় প্রত্যাবর্তন করেছিল ভারতের মহিলা দল। ইংল্যান্ড মহিলা এ দলের জয় ছিনিয়ে নিল ভারত। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে রোমাঞ্চকর তিন রানের জয় নিবন্ধন করেছে। জয়ের জন্য ১৩৫ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমেছিল ইংল্যান্ড। সহ-অধিনায়ক হলি আর্মিটেজ (৫২ রান) এবং উইকেট-রক্ষক ব্যাটসম্যান সেরিন স্মালি (৩১ রান) এর মধ্যে চতুর্থ উইকেটে ৭০ রানের জুটি গড়েন। এর কারণে ইংল্যান্ড দল ম্যাচটিকে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রেখেছিল। কিন্তু ভারত একটানা উইকেট নিতে থাকে এবং প্রত্যাবর্তন করে এবং একটি ক্লোজ ম্যাচ জয় করতে সফল হয়।

দেখুন ম্যাচের শেষ মুহূর্তের ভিডিয়ো-

শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ইংল্যান্ড দল আট উইকেটে ১৩১ রান সংগ্রহ করতে সফল হয়। কাশভি গৌতম (২৩ রানে ২ উইকেট) ১৮তম ওভারে স্মালি এবং ইসি ওয়াংকে (০২) আউট করে ভারতের জন্য প্রত্যাবর্তনের দ্বার খুলে দেন। এর কারণে শেষ ওভারে ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য ১৩ রান দরকার ছিল। এই সময়ে শ্রেয়াঙ্কা পাটিল (২৬ রানে ২ উইকেট) প্রথম বলেই পাঁচটি অতিরিক্ত (ওয়াইড) রান দিয়ে বসেন। কিন্তু এরপরেও ভারত তিন রানে জিততে সক্ষম হয়।

ভারতীয় মহিলা এ দল বড় স্কোর করতে পারেনি এবং মাঠে অনেক ভুলও করেছিল। আরমিটেজ এই ম্যাচে ৪১ বলে তিনটি চার ও একটি ছক্কা মেরে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেন। আর্মিটেজ এবং স্মালি অনেক শক্তিশালী শট মারেন এবং উইকেটের মধ্যে দ্রুত দৌড়ে ভারতীয় ফিল্ডারদের চাপে রাখেন।

দ্বিতীয় ওভারে গ্রেস স্ক্রিভেনসের (০৭) আকারে ভারত এ-এর হয়ে প্রথম উইকেট পান পাতিল। মান্নাত কাশ্যপ (২১ রানে ১ উইকেট) ম্যাডি ভিলিয়ার্স (২০ রান) এবং প্রকাশিকা নায়ক ফ্রেয়া কেম্পকে (এক রান) আউট করেন। এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভারে সাত উইকেটে ১৩৪ রান করে ভারত। দিশা কাসাট ৩২ বলে তিনটি চারের সাহায্যে ২৫ রানের ইনিংস খেলেন। এছাড়া বৃন্দা দীনেশ ও জি দিব্যা ২২ রান করেন। ধীরগতির পিচে রান রেট বাড়াতে পারেনি ভারতীয় দল। ইংল্যান্ডের অধিনায়ক চার্লি ডিন চার ওভারে ১৯ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন এবং কেম্প চার ওভারে ৩০ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন। একটি করে উইকেট নেন ওয়াং, লরেন ফিলার ও কার্স্টি গর্ডন।

তবে ম্যাচের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর মুহূর্ত ছিল খেলার শেষ ওভারটি। শেষ ওভারে ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য ১৩ রান দরকার ছিল। এই সময়ে বল করতে আসেন শ্রেয়াঙ্কা পাটিল। ওভারের প্রথম বলেই পাঁচটি অতিরিক্ত (ওয়াইড) রান দিয়ে বসেন তিনি। ফলে ইংল্যান্ডকে ম্যাচটি জিততে হলে শেষ ছয় বলে ৮ রান করতে হত। পরের বলেই লেগবাই দিয়ে বসেন পাতিল। এরপরে তিন বলে তিন রান দেন তিনি। ফলে শেষ ওভারের চার বলে ৯ রান পেয়ে যায় ইংল্যান্ড। এই সময়ে ম্যাচ জিততে হলে শেষ তিন বলে ইংল্যান্ডকে করতে হত আর চার রান। এমন সময়ে পরপর দু বলে দুটি উইকেট নিয়ে ভারতের জয় নিশ্চিত করেন শ্রেয়াঙ্কা পাটিল। তিন রানে ম্যাচ জেতে ভারত। এরফলে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল ভারতের মহিলা এ দল।

রোহিতদের প্রস্তুতির রোজনামচা, পাল্লা ভারি কোন দলের, ক্রিকেট বিশ্বকাপের বিস্তারিত কভারেজ, সঙ্গে প্রতিটি ম্যাচের লাইভ স্কোরকার্ড IPL সূচি - এর জন্য চোখুন HT Bangla - তে

ক্রিকেট খবর