বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন ২০২১ > ভবানীপুর আমার বড় বোন, নন্দীগ্রাম মেজো বোন, পারলে দুটোতেই দাঁড়াব:‌ মমতা
নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার। ছবি সৌজন্য : টুইটার
নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার। ছবি সৌজন্য : টুইটার

ভবানীপুর আমার বড় বোন, নন্দীগ্রাম মেজো বোন, পারলে দুটোতেই দাঁড়াব:‌ মমতা

  • বিবেকের ডাকেই নন্দীগ্রামে প্রার্থী হলেন বলে এদিন জানান মমতা। তিনি বলেন, ‘‌আমার বিবেক আমায় জাগ্রত করে বলল, ‌ওরে নন্দীগ্রাম থেকেই ঘোষণা কর। এটা তোদের সবথেকে লাকি জায়গা। এটা সবচেয়ে ভাল জায়গা। এটা সবচেয়ে পবিত্র জায়গা।’‌

একুশে ভোটের আগে তৃণমূলের প্রথম প্রার্থীর নাম হিসেবে নিজের নামটাই ঘোষণা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার নন্দীগ্রামের তেখালির মাঠ থেকে শুভেন্দু অধিকারী–সহ অধিকরী পরিবারকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে নিজেই নন্দীগ্রামের আসন থেকে লড়বেন বলে ঘোষণা করে গেলেন তিনি। সেই আসনে তাঁর নাম চূড়ান্ত করতে নির্দেশ দিলেন সুব্রত বক্সিকে। পাশাপাশি ভবানীপুরকেও অবজ্ঞা করবেন না বলেই জানালেন মমতা। জানালেন, ‘‌ভবনীপুরের মানুষকে আমি দুঃখ দেব না।’‌

মমতার কথায়,‌ ‘‌ভবানীপুর আমার বড় বোন আর নন্দীগ্রাম আমার মেজো বোন। আমি দুটি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে পারলে এবার দাঁড়াব। কারণ, নন্দীগ্রামে থেকেই আমি আন্দোলনটা করব। ভবানীপুরের মানুষ দুঃখ পেতে পারে। আমি দুঃখ দেব না। যদি ম্যানেজ করতে পারি আমি দুটোতেই দাঁড়াব। কিন্তু নন্দীগ্রামে আমি দাঁড়াচ্ছিই।’‌

বিবেকের ডাকেই নন্দীগ্রামে প্রার্থী হলেন বলে এদিন জানান মমতা। তিনি বলেন, ‘‌আমার বিবেক আমায় জাগ্রত করে বলল, ‌ওরে নন্দীগ্রাম থেকেই ঘোষণা কর। এটা তোদের সবথেকে লাকি জায়গা। এটা সবচেয়ে ভাল জায়গা। এটা সবচেয়ে পবিত্র জায়গা।’‌

মুখ্যমন্ত্রী এদিন হুঙ্কার দিয়ে বলেন, ‘‌নন্দীগ্রাম থেকে ২০২১–এ তৃণমূল জিতবে। এবং নন্দীগ্রাম থেকেই শুরু হল জেতার পালা। তৃণমূল এই নির্বাচনে জয়লাভ করবে। প্রতিটি আসনে জিতবে তৃণমূল।’‌ নন্দীগ্রামের মায়েদের কাছে মমতার আবেদন, ‘‌ভুল করলে গালে একটা থাপ্পড় মেরো। কিন্তু মনটা ফিরিয়ে নিও না। মুখটা ফিরিয়ে নিও না।’‌ তিনি বলেন, ‘‌যতদিন থাকব, তোমাদের পাহারাদার হিসেবে থাকব। তোমরা আমাকে ঘরের মেয়ের মতো ভালবাস। এটুকুই চাই।’‌

বন্ধ করুন