বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > পুরভোটের লড়াই > ব্যতিক্রমী লড়াই কোচবিহারে, তৃণমূল নেত্রী মা-কে হারিয়ে জয়ী নির্দল ছেলে
কোচবিহারে মাকে হারিয়ে জয়ী উজ্জ্বল তর।

ব্যতিক্রমী লড়াই কোচবিহারে, তৃণমূল নেত্রী মা-কে হারিয়ে জয়ী নির্দল ছেলে

  • মা ও ছেলের ভোটের লড়াইয়ে জয়ীকে হবে জানার জন্য এদিন সকাল থেকে কোচবিহারের দু'নম্বর ওয়ার্ডে ভোটের ফলাফলের ওপর নজর ছিল কৌতূহলী মানুষের।

এবার পুরভোটের রাজনীতিতে ব্যতিক্রমী ছবি ধরা পড়েছে। ক্ষমতা দখলের লড়াই মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছিল মা ও ছেলেকে। আর সেই লড়াইয়ে মাকে হারিয়ে জয়ী হলেন ছেলে। পুরভোটের লড়াইয়ে এমনই ব্যতিক্রমী ছবি ধরা পরল কোচবিহারে। নির্দল প্রার্থী হিসেবে কোচবিহার পুরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে তৃণমূল নেত্রী মা মীনা তরকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন উজ্জ্বলতর। ৬১১ ভোটের ব্যবধানে তিনি জয়ী হয়েছেন।

কোচবিহার পুরসভার বিদায়ী বোর্ডের পুর প্রশাসক মীনা তর। তাঁর ছেলে উজ্জ্বল তর দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। এবার পুরভোটের প্রার্থী তালিকাকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের মধ্যে অসন্তোষ দেখা গিয়েছিল। তার ব্যাতিক্রম হয়নি কোচবিহারের ২ নম্বর ওয়ার্ডে। মাকে তৃণমূল থেকে প্রার্থী করার পরেই অভিমানে তৃণমূল ছেড়ে নির্দল প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়ে ছিলেন উজ্জ্বল তর। তৃণমূলের কাছ থেকে টিকিট না পেয়ে খালি হাতে ফিরতে হলেও পুরভোটের ফলাফলে খালি হাতে ফিরতে হয়নি উজ্জ্বলকে। মা ও ছেলের ভোটের লড়াইয়ে জয়ীকে হবে জানার জন্য এদিন সকাল থেকে কোচবিহারের দু'নম্বর ওয়ার্ডে ভোটের ফলাফলের ওপর নজর ছিল কৌতুহলী মানুষের। বুধবার ফল প্রকাশ হতেই দেখা যায় তিনি ৬১১ ভোটে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন। 

যদিও এই হারে মাথাব্যথা নেই তৃণমূলের। তাদের বক্তব্য, ‘দলের জনপ্রিয়তা এমন জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে যে মুখোমুখি লড়াই করতে পিছুপা হয়নি মা ও ছেলে।’ এই জয়ে উচ্ছ্বসিত উজ্জ্বলতর এবং তার সমর্থকরা। তিনি বলেন, ‘এখন দলের বোঝা উচিত যে তারা কতটা ভুল করেছিল। আমাকে প্রার্থী না করার সিদ্ধান্ত যে তাদের ভুল ছিল তা তাদের বোঝা উচিত। আমার এই জয় আমি বাবা কাজল তরকে উৎসর্গ করছি।’

বন্ধ করুন