বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > পুরভোটের লড়াই > ‘১০৮টি পুরসভাতেই আমরা বোর্ড গঠন করব’‌, গণনাকেন্দ্রে দাঁড়িয়ে দাবি রবীন্দ্রনাথের
রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। ফাইল ছবি

‘১০৮টি পুরসভাতেই আমরা বোর্ড গঠন করব’‌, গণনাকেন্দ্রে দাঁড়িয়ে দাবি রবীন্দ্রনাথের

  • এই পরিস্থিতিতে বড় দাবি করে বসলেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।

ঘড়িতে সকাল ৮টা বাজতেই কোচবিহারের দিনহাটা বাদে রাজ্যের ১০৭টি পুরসভায় ভোট গণনা শুরু হয়ে গেল। ব্যালট দিয়ে শুরু হয়েছে গণনা। তারপর হচ্ছে ইভিএম–এর ভোট গণনা। আজ, বুধবার পুরসভা নির্বাচনের ফলাফলের দিকে নজর সকলের। এই পরিস্থিতিতে বড় দাবি করে বসলেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।

ঠিক কী বলেছেন রবীন্দ্রনাথ?‌ আজ, পুরসভা নির্বাচনের গণনা শুরু হতেই গণনা কেন্দ্রে পৌঁছে গিয়েছেন কোচবিহার পুরসভার আট নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। কোচবিহার নৃপেন্দ্র নারায়ণ উচ্চ বিদ্যালয় দাঁড়িয়ে রবীন্দ্রনাথ বলেন, ‘১০৮টি পুরসভাতেই আমরা বোর্ড গঠন করব। জয়ের ব্যাপারে আমি একশো শতাংশ আশাবাদী।’ ফলপা প্রকাশের আগেই এই দাবি করেছেন তিনি বলে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

রাজ্যে ২০ জেলার ১০৮টি পুরসভার ফলাফল ঘোষণা হতে চলেছে। ৪টি পুরসভা অবশ্য ইতিমধ্যেই দখল করে ফেলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। সেগুলি হল— কোচবিহারের দিনহাটা (১৬টি ওয়ার্ডের ১৬টিতেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী তৃণমূল কংগ্রেস), দক্ষিণ ২৪ পরগনার বজবজ (২০টি ওয়ার্ডের ১৮টিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী), বীরভূমের সিউড়ি (২১টি ওয়ার্ডের ১৬টিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী) এবং সাঁইথিয়া (১৬টি ওয়ার্ডের ১৪টিতেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী তৃণমূল কংগ্রেস)।

উল্লেখ্য, পুরসভার ভোটগ্রহণ হয়েছিল গত রবিবার। আজ, বুধবার তার ফলপ্রকাশ হচ্ছে। ১০৮টি পুরসভায় মোট ওয়ার্ডের সংখ্যা ২২৭৭। তিনটি ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ হয়নি। তিনটিই উত্তর ২৪ পরগনায়। আইনি জটিলতায় ভোট হয়নি ভাটপাড়ার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে। প্রার্থীর মৃত্যুতে ভোট স্থগিত হয়ে যায় দমদমের ৪ নম্বর এবং দক্ষিণ দমদমের ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে।

বন্ধ করুন