বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > Tripura Violence: ভোট পরবর্তী হিংসা ত্রিপুরায়, বামের পাশাপাশি আক্রান্ত বিজেপিও

Tripura Violence: ভোট পরবর্তী হিংসা ত্রিপুরায়, বামের পাশাপাশি আক্রান্ত বিজেপিও

আক্রান্ত বিজেপি কর্মীকে দেখতে হাসপাতালে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা (PTI Photo)  (PTI)

খোয়াইতে আক্রান্ত কর্মীদের দেখতে যান বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী। শনিবার খোয়াই ও সিপাহীজলা জেলার আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিদায়ী মুখ্য়মন্ত্রী ও জেলার পুলিশ, প্রশাসনের পদস্থ আধিকারিকরা।

ত্রিপুরায় ফের ক্ষমতায় ফিরেছে বিজেপি। ভোট পরবর্তী হিংসা যাতে না হয় সেকারণে আবেদন জানিয়েছিলেন বিদায়ী মুখ্য়মন্ত্রী মানিক সাহা। কিন্তু তাঁর আবেদন সত্ত্বেও ভোটের ফলাফল বের হওয়ার পর থেকেই এলাকায় শুরু হয়েছে ভোট পরবর্তী হিংসা। একাধিক জায়গায় লুঠপাট, ভাঙচুর, ঘরে অগ্নি সংযোগের অভিযোগ উঠেছে। তবে শুধু বিরোধী সিপিএম ও কংগ্রেসের কর্মীদের উপর হামলা হচ্ছে এমনটা নয়, বিজেপির জয়ী কর্মী সমর্থকরাও আক্রান্ত হচ্ছেন। সব মিলিয়ে একাধিক জায়গায় রাজনৈতিক হিংসার ঘটনার অভিযোগ। 

এদিকে বিভিন্ন জায়গায় হিংসা ঠেকাতে ময়দানে নেমেছে পুলিশ । ধরপাকড়ও চলছে পুরোদমে। অন্তত ২০০জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় পুলিশের টহল চলছে। এদিকে এই ঘটনাকে ঘিরে রাজনৈতিক চাপানউতোরও চলছে পুরোদমে। বিরোধীদের দাবি, ভোট মিটতেই ঝাঁপিয়ে পড়েছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। বিভিন্ন জায়গায় বাড়িতে ভাঙচুর করা হচ্ছে। তার সঙ্গে চলছে অগ্নিসংযোগ। একেবারে আগের নির্বাচন পরবর্তী পরিস্থিতি ত্রিপুরায় ফিরে আসছে বলে দাবি করেছেন বিরোধীরা।

এদিকে বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা জানিয়েছেন, এই ঘটনায় কাউকে রেয়াত করা হবে না।কোনও কোনও স্বার্থান্বেষী মহল এটা ঘটাচ্ছে। কে বা কারা এই ঘটনার পেছনে রয়েছেন তা আমরা সকলেই জানি। অন্যদিকে নিজেদের দলের কেউ থাকলে তার বিরুদ্ধেও ব্য়বস্থা নেওয়ার ইঙ্গিত তিনি দিয়েছেন।

এদিকে খোয়াইতে আক্রান্ত কর্মীদের দেখতে যান বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী। শনিবার খোয়াই ও সিপাহীজলা জেলার আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিদায়ী মুখ্য়মন্ত্রী ও জেলার পুলিশ, প্রশাসনের পদস্থ আধিকারিকরা। 

এদিকে তিপ্রা মোথার জয়ী প্রার্থী রঞ্জিত দেববর্মা বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে কর্মী সমর্থকদের আশ্বাস দেন। কোনওভাবেই যাতে হিংসা না ছড়ায় সেব্যাপারে রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা আবেদন করেছেন। বাম-কংগ্রেস নেতাদের পক্ষ থেকেও এনিয়ে শান্তিরক্ষার আবেদন করা হয়েছে। 

সকলেই চাইছেন ভোটের ফলাফল বের হওয়ার পরে যাতে রাজনৈতিক হিংসায় আর কেউ ক্ষতির মুখে না পড়েন। সেকারণে শাসক, বিরোধী রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে সকলকে আবেদন জানানো হয়েছে, কোনও রকম প্ররোচনায় পা দেবেন না।  

এদিকে বিগত দিনে বাংলায় ভোট পরবর্তী হিংসার অভিযোগ তুলতেন বিরোধী বিজেপি সহ একাধিক রাজনৈতিক দল। এবার সেই বিজেপির একাংশের বিরুদ্ধে ত্রিপুরায় রাজনৈতিক হিংসা ঘটানোর অভিযোগ। 

ভোটযুদ্ধ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

ডাস্টবিন করে রেখেছে' লোকসভা ভোটের আগে প্রার্থী বাছাই নিয়ে অনন্ত মহারাজের তোপ অভিষ্কাকে সাজঘরে ফিরিয়ে ‘টাইম-আউট’ নিয়ে শরিফুল খোঁচা মারলেন লঙ্কাকে, শুরু বিতর্ক ফোনের ফ্ল্যাশলাইট আর সমবেত কণ্ঠে ফসিলসের হাস্নুহানা! রূপম উন্মাদনায় ভাসল কলকাতা ‘আমি হোম ডেলিভারি, ঘরে জন্মেছি; এখন লোকে বাড়িতে খাবার দেওয়া বোঝে', বললেন মমতা রাজ্যসভার সদস্যপদ ছাড়লেন নড্ডা, লড়বেন লোকসভা ভোটে? শাহের মতোই পরিকল্পনা? হিসেব জমা দেওয়ার জন্য় আর একটু সময় দিন, সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করল স্টেট ব্যাঙ্ক ১০ মার্চই হবে ডার্বি, রাত ৯টায় শুরু হতে পারে ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগানের মহারণ! কেমন হল সিবিএসই দ্বাদশ শ্রেণির ফিজিক্সের প্রশ্ন? কেউ কেউ বলছে, জটিল আর দীর্ঘ সবুজ পাঞ্জাবি পরে কুণালের সঙ্গে চা-চক্রে সুদীপ, 'বিজেপি' তকমা পেয়েছিলেন আগেই এখনই ঝড়-বৃষ্টি হবে একাধিক জেলায়, হতে পারে শিলাবৃষ্টি, কিছুটা গরমও কমবে বাংলায়!

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.