বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‘ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট’ ঘোষণা পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির
আব্বাসউদ্দিন
আব্বাসউদ্দিন

‘ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট’ ঘোষণা পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির

  • তাঁর দলের নাম ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট। ফ্রন্টের চেয়ারম্যান শ্রীমন সোরেন, আর সভাপতি নওশাদ সিদ্দিকি।

রাজ্যে নতুন রাজনৈতিক সমীকরণ তৈরি হল। কারণ নতুন দলের ঘোষণা করলেন পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি। বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে সেই দলের নাম ও পতাকা প্রকাশ্যে আনলেন তিনি। মূলত সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের কাছে উন্নয়ন পৌঁছে দিতেই এই দল গড়া বলে জানান আব্বাস। তাঁর দলের নাম ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট। ফ্রন্টের চেয়ারম্যান শ্রীমন সোরেন, আর সভাপতি নওশাদ সিদ্দিকি। কয়েকদিনের মধ্যে দলের পূর্ণাঙ্গ কমিটিও ঘোষণা করা হবে। আব্বাসউদ্দিন জানান, ‘‌ধর্মে কোনও বাধা নেই, তাই রাজনীতিতে এসেছি। বিধানসভা ভোটে লড়ব না। দলকে নেতৃত্ব দেব।’‌

২০১৯ সাল থেকে রাজ্যে সক্রিয় হয়েছেন আব্বাস। গঠন করেন ফুরফুরা শরিফ আহালে সুন্নাতুল জন্নত নামে একটি সংগঠন। ধর্মীয় অনুষ্ঠান থেকে রাজনৈতিক বার্তা দিয়েছেন তিনি। প্রাথমিকভাবে মনে করা হয়েছিল, তৃণমূলের সমর্থনে নির্বাচনে লড়াই করবেন তিনি। তাঁকে দলে টানতে চেয়ে পীরজাদার দ্বারস্থ হয়েছিলেন বাম ও কংগ্রেস। কিন্তু তাতেও সাড়া মেলেনি। শেষে ওয়েইসির সমর্থনে নির্বাচনে লড়াইয়ের কথা জানান পীরজাদা। আজ দল গঠনের ঘোষণা করলেন তিনি।

২৬ জানুয়ারি থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে পথ চলা শুরু হবে ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের। একুশের নির্বাচনে ইতিমধ্যেই বাংলায় প্রার্থী দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন মিম সুপ্রিমো আসাদউদ্দিন ওয়েইসি। আব্বাস সিদ্দিকির নয়া দলের নাম ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট। তাদের পতাকায় রয়েছে দুটি রঙ। নীল এবং সবুজ। তবে দলের প্রতীক এখনও সামনে আনেননি তিনি। দলের চেয়্যারম্যান হয়েছেন আব্বাসের ভাই নৌসাদ সিদ্দিকি। মূলত রাজ্যের মুসলিম অধ্যুষিত জেলাগুলিতেই প্রার্থী দেবেন তাঁরা। আব্বাসের পাখির চোখ দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলির, নদিয়ার একাংশ।

এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে আব্বাসউদ্দিন সিদ্দিকী বলেন, ‘‌আমাদের পরিবারে অনেক পীর সাহেব আছেন। তাঁদের আর্শীবাদ রয়েছে। পার্টি তৈরি করেছি। আমাদের লক্ষ্য, অসহায় মানুষের কণ্ঠ হওয়া। মানুষ আমাদের শুনছেন। যে দলই আসবে, তাকে নিজের মনে করে পথ চলব।’‌ ফ্রন্টে মিমের ভূমিকা কী হবে? মিম তো বিজেপিকে সুবিধা করে দিচ্ছে? এবার পাল্টা প্রশ্ন, ‘‌কে বলছে, মিম বিজেপির দল?’‌ তিনি জানিয়েছেন, ‘‌অনেকেই আছে যাঁরা নিজেদের নিরপেক্ষ বলেন। কিন্তু আদপে কাজে তা প্রমাণিত হয় না। শুধু মুসলিম নয়, হিন্দু সমাজেরও বহু পিছিয়ে পড়া মানুষ আছেন।’‌

উল্লেখ্য, এবার বিধানসভা নির্বাচনের বাংলায় লড়বে শিবসেনাও। দিন কয়েক আগে টুইট করে একথা জানিয়েছেন দলের সাংসদ সঞ্জয় রাউত। টুইটে তিনি লেখেন, ‘‌আপনাদের জন্য বহু প্রতীক্ষিত আপডেট। পার্টি সচিব উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে আলোচনার পর শিবসেনা এবার বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা শীঘ্রই কলকাতায় আসছি। জয় হিন্দ, জয় বাংলা।’‌

বন্ধ করুন