বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > রাজবংশী সংস্কৃতি কেন্দ্র থেকে নারায়ণী ব্যাটেলিয়ন, কোচবিহারে একগুচ্ছ ঘোষণা শাহের
অমিত শাহের সভা
অমিত শাহের সভা

রাজবংশী সংস্কৃতি কেন্দ্র থেকে নারায়ণী ব্যাটেলিয়ন, কোচবিহারে একগুচ্ছ ঘোষণা শাহের

  • বাম-কংগ্রেস- তৃণমূলের বিরুদ্ধে রাজবংশী সংস্কৃতিকে উপেক্ষা করার অভিযোগ তুলে শাহ বলেন, ‘কংগ্রেস, বাম ও তৃণমূল রাজবংশী সংস্কৃতি ও ভাষাকে সম্মান জানায়নি। আমি কথা দিচ্ছি, বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় এলে ৫০০ কোটি টাকা খরচ করে রাজবংশী সাংস্কৃতি কেন্দ্র স্থাপন করবে।

কোচবিহারে বিজেপির ‘পরিবর্তন যাত্রা’ শুরুর আগে রাজবংশীদের মন পেতে একগুচ্ছ প্রতিশ্রুতি দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন একগুচ্ছ গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেন তিনি। জানান, ‘মুঘলদের বিরুদ্ধে লড়াইকে সম্মান জানাতে আধা সামরিক বাহিনীতে তৈরি হয়েছে নারায়ণী ব্যাটেলিয়ন।’

এদিন শাহ বলেন, ‘এই পরিবর্তন যাত্রা বিধায়ক বদলে নতুন বিধায়ক আনার জন্য বা মন্ত্রী বদলে বিজেপির মন্ত্রী আনার জন্য নয়। এই যাত্রা বাংলার পরিস্থিতি পরিবর্তনের লক্ষ্যে। বাংলায় অনুপ্রবেশ রোখার জন্য এই পরিবর্তন যাত্রা। আপনারা একবার বিজেপিকে ক্ষমতায় আনুন। আমি কথা দিচ্ছি মানুষ তো দূরের কথা একটা পাখিও অনুপ্রবেশ করতে পারবে না’। 

এর পরই রাজবংশীদের বীরত্বের প্রশংসা করে শাহ বলেন, ‘নারায়ণী সেনার নাম শুনে মুঘলরাও চোখে সরষে ফুল দেখতো। এই ভূমিই মুঘলদের বিজয়রথ রুখেছিল। সেই মাটি আজ অনুপ্রবেশকারীতে ভরে উঠছে। নারায়ণী সেনার বীরত্ব মনে রাখতে আধাসামরিক বাহিনীতে নারায়ণী ব্যাটেলিয়ন তৈরি করার সিদ্ধন্ত নিয়েছে মোদী সরকার। বাহিনীর প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নাম রাজবংশী বীর চিলা রায়ের নামে রাখা হয়েছে’। 

বাম-কংগ্রেস- তৃণমূলের বিরুদ্ধে রাজবংশী সংস্কৃতিকে উপেক্ষা করার অভিযোগ তুলে শাহ বলেন, ‘কংগ্রেস, বাম ও তৃণমূল রাজবংশী সংস্কৃতি ও ভাষাকে সম্মান জানায়নি। আমি কথা দিচ্ছি, বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় এলে ৫০০ কোটি টাকা খরচ করে রাজবংশী সাংস্কৃতি কেন্দ্র স্থাপন করবে। সঙ্গে ২৫০ কোটি টাকা খরচ করে ঠাকুর পঞ্চানন বর্মার স্মারক ও মূর্তি তৈরি করবে বিজেপি সরকার’। সঙ্গে মদনমোহন মন্দির থেকে পঞ্চানন বর্মার জন্মস্থান পর্যন্ত ট্যুরিস্ট সার্কিট তৈরি করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন তিনি।

লোকসভা নির্বাচনের পর থেকে কোচবিহারে তৃণমূলের হাল বেশ খারাপ। গোষ্ঠীদ্বন্দে সেখানে ছন্নছাড়া শাসকদলের সংগঠন। উলটে জেলাজুড়ে ক্ষমতা বাড়িয়েছে বিজেপি। বিধানসভা নির্বাচনে জেলার সব কটি আসনই ঝুলিতে পুরতে তাই ভোটের মুখে আস্তিনের তাস বার করলেন শাহ।

বন্ধ করুন