বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > হালিশহরে ভোট দিতে যাওয়ার পথে 'হামলা', জখম তৃণমূল কর্মী

ভোটের দিনে ফের উত্তেজনা হালিশহরে। হালিশহরের কোনা কলোনি এলাকায় ভোট দিতে যাওয়ার পথে এক তৃণমূল কর্মীকে ছুরি দিয়ে আঘাত করার অভিযোগ বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে উঠেছে। তৃণমূলের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার তৃণমূল কর্মী মাধব দাস ভোট দেওয়ার জন্য বেরিয়েছিলেন। রাস্তাতেই তাকে আটকানো হয় বলে অভিযোগ। এরপরই এনিয়ে উত্তেজনা ছড়ায়। বিজেপির আশ্রিত দুষ্কৃতীদের দিকেই অভিযোগের তির। ঠিক কী হয়েছিল এদিন? 

মাধব দাস নামে ওই তৃণমূল কর্মী বলেন,  'আমি ভোট দিতে যাওয়ার জন্যই এদিন রাস্তায় বেরিয়েছিলাম। বিজেপির কিছু দুষ্কৃতী এলাকায় আগে থেকেই ছিল। আচমকাই তারা রাস্তা আটকে দাঁড়ায়। এরপরই তারা বলে ভোট হয়ে গিয়েছে, চলে যাও। আমি তখন তার প্রতিবাদ করি। তারা বলে, ভোট হয়ে গিয়েছে চলে যাও। কিন্তু আমি বলি ভোট আমি দেব। এরপরই এনিয়ে ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়ে যায়। তখনই বিজেপির এক কর্মী পকেট থেকে ছুরি বের করে আমাকে আঘাত করে।' এদিকে রক্তে ভিজে যায় ওই তৃণমূল কর্মীর গেঞ্জি। গোটা ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি বিভিন্ন জায়গাতেই রাস্তায় দাঁড়িয়ে রয়েছে বিজেপি কর্মীরা। তারা ভোট দিতে যেতে বাধা দিচ্ছে। তবে যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  

এদিকে রাজনৈতিক মহলের মতে, এতদিন ভোটের সময় মূলত বিরোধীরাই অভিযোগ করতেন তাদের ভোট দিতে যেতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। তাৎপর্যপূর্ণভাবে এদিন সেই অভিযোগের সুর শোনা যায় শাসকদলের মুখে। এমনকী পুলিশকে দলদাস বলে এতদিন অভিযোগ তুলতেন বিরোধীরা। এদিন পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে দেখা যায় পুলিশের বিরুদ্ধে ভুরি ভুরি অভিযোগ তুলছেন শাসকদলের নেতৃত্ব। ভোটষষ্ঠীতে এই বিপরীত চিত্র নজর কেড়েছে অনেকেরই। 

 

বন্ধ করুন