বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > সভায় উধাও করোনা-বিধি, পরদিনই দ্বিতীয়বার করোনায় আক্রান্ত বাবুল, সংক্রমিত স্ত্রী
বাবুল সুুপ্রিয়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
বাবুল সুুপ্রিয়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

সভায় উধাও করোনা-বিধি, পরদিনই দ্বিতীয়বার করোনায় আক্রান্ত বাবুল, সংক্রমিত স্ত্রী

  • শনিবার এন্টালিতে তাঁর সভায় শিকেয় উঠেছিল করোনাভাইরাস বিধি।

শনিবার এন্টালিতে তাঁর সভায় শিকেয় উঠেছিল করোনাভাইরাস বিধি। সেজন্য দুষেলেন পুলিশকে। আর পরদিনই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তাঁর স্ত্রীও করোনার কবলে পড়েছেন। তার জেরে আগামিকাল (সোমবার) তিনি ভোট দিতে পারবেন বলে জানিয়েছেন টালিগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী।

রবিবার সকালে টুইটারে বাবুল বলেন, ‘আমি এবং আমার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছি। আমি দ্বিতীয়বার করোনার কবলে পড়েছি। অত্যন্ত দুঃখের বিষয় যে আমি আসানসোলে ভোট দিতে পারব না। ২৬ (এপ্রিলের) ভোটের জন্য আমার রাস্তায় থাকার দরকার ছিল। যেখানে তৃণমূল কংগ্রেসের মরিয়া গুন্ডারা অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন বানচালের জন্য তাঁদের সন্ত্রাস শুরু করেছেন।’

তবে রাস্তায় না থাকলেও বাড়িতে বসেই সবকিছুর উপর নজর রাখবেন বলে জানিয়েছেন বাবুল। তিনি বলেন, ‘তবে টিএমছির সন্ত্রাস করে বেড়ানো লোকজনরা আনন্দ নাও করতে পারেন। ২০১৪ সাল থেকে আমি যাঁদের (ভালোভাবে) সামলেছি। বাড়ি থেকেই নিজের দায়িত্ব পালন করব। সেখানে নয়ে নয় করতে মানসিকভাবে আমার প্রার্থীদের সঙ্গে থাকব।’

বাবুলের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরের পরই রাজনৈতিক সভায় করোনা-বিধি কতটা পালন হচ্ছে, তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। শনিবার এন্টালিতে বাবুলের (তিনি মাস্ক পরেছিলেন) সভায় করোনা-বিধি তেমনভাবে চোখে পড়েনি। মানা হয়নি সামাজিক দূরত্বের বিধি। মাস্কও ছিল না অনেকের মুখ। তা নিয়ে অবশ্য সাফাই গেয়েছিলেন বাবুল। দাবি করেছিলেন যে তিনি ‘বোকা’ নন। তাই আগেভাগেই সামাজিক দূরত্বের বিধির বিষয়ে জানানো হয়েছিল। বাবুল বলেন, 'আজ এখানে মানুষ যে করোনা বিধি মানলেন না, তার জন্য আমি নির্বাচন কমিশনের চিঠি পেতে পারি। এটা আমি নিশ্চয়ই জানি। কিন্তু মানুষ যদি চারিদিকে গলি থেকে এভাবে বেরিয়ে আসেন, তাঁরা যদি এভাবে ঘিরে দাঁড়ান, তাহলে আমি কী করব বলুন তো।' নিজের সমর্থনে ‘দিদির পুলিশের’ বিরুদ্ধে দায় চাপিয়েছিলেন। 

বন্ধ করুন