বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > অশ্রাব্য ভাষায় বক্তব্য রাখছেন মমতা, নিষিদ্ধ করার দাবিতে কমিশনের দ্বারস্থ BJP
মঙ্গলবার নন্দীগ্রামে ভোট প্রচারে মমতা। (Samir Jana/HT Photo)
মঙ্গলবার নন্দীগ্রামে ভোট প্রচারে মমতা। (Samir Jana/HT Photo)

অশ্রাব্য ভাষায় বক্তব্য রাখছেন মমতা, নিষিদ্ধ করার দাবিতে কমিশনের দ্বারস্থ BJP

  • এদিন কমিশনের সঙ্গে সাক্ষাৎ সেরে বেরিয়ে অর্জুন সিং বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অত্যন্ত খারাপ ভাষায় ভোটপ্রচার করছেন। আমরা চাই তাঁকে নিষিদ্ধ করা হোক।’

মঞ্চ থেকে কদর্য ভাষায় একের পর এক আক্রমণ করছেন তিনি। এই অভিযোগে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভোট প্রচারে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলে কমিশনের দ্বারস্থ হল বিজেপি। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফার ভোট প্রচারের শেষ দিনে এই দাবিতে কমিশনের দ্বারস্থ হন বিজেপি নেতা অর্জুন সিং ও শিশির বাজোরিয়া। তাদের দাবি, তৃণমূলনেত্রীর ভাষণ নিষিদ্ধ করা উচিত কমিশনের। বিজেপির দাবি কমিশন মেনে নিলে মঞ্চে হাজির থাকলেও বক্তব্য রাখতে পারবেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

এদিন কমিশনের সঙ্গে সাক্ষাৎ সেরে বেরিয়ে অর্জুন সিং বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অত্যন্ত খারাপ ভাষায় ভোটপ্রচার করছেন। আমরা চাই তাঁকে নিষিদ্ধ করা হোক।’ 

বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কাউকে ছাড়েননি মমতা। কখনো নাম করে, কখনো নাম না করে অশ্রাব্য ভাষায় তাঁদের আক্রমণ করেছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী প্রকাশ্য মঞ্চ থেকে প্রকাশনার অযোগ্য ভাষায় সম্মোধন করেছেন তিনি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে বলেছেন ‘হোদল কুৎকুৎ’। বিজেপি সভাপতি জেপি নড্ডাকে বলেছেন, ‘চাড্ডা, হাড্ডা, নাড্ডা, গাড্ডা।’ 

এমনকী বিজেপির দাবি, প্রচারের মঞ্চ থেকে সাধারণ মানুষকে প্রচ্ছন্ন হুমকি দিচ্ছেন মমতা। বলছেন, ‘ভোট মিটে গেলে কেন্দ্রীয় বাহিনী চলে যবে। আমরাই থাকবো।’ এই নিয়েও কমিশনে অভিযোগ জানিয়েছে বিজেপি।

 

বন্ধ করুন