বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > BJP এলে ৭ম বেতন কমিশন পাবেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা, সম্মান পাবেন শিক্ষকরাও: শাহ
বৃহস্পতিবার নামখানায় বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করছেন অমিত শাহ। 
বৃহস্পতিবার নামখানায় বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করছেন অমিত শাহ। 

BJP এলে ৭ম বেতন কমিশন পাবেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা, সম্মান পাবেন শিক্ষকরাও: শাহ

  • এদিন শাহের মুখে শোনা যায় আদিগঙ্গায় নেমে শিক্ষামিত্রদের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি অভিযানের কথাও। বলেন, ‘আমি একটা ছবি দেখলাম। খালে কোমর পর্যন্ত জলে আমাদের শিক্ষকরা নিজেদের ন্যায্য দাবির জন্য লড়ছেন।

বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় এলে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য লাগু হবে সপ্তম বেতন কমিশন। সঙ্গে শিক্ষকদের বঞ্চনা দূর করতে বিশেষ কমিটি বানাবে বিজেপি সরকার। বৃহস্পতিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানায় বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করতে গিয়ে এমনই বললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সঙ্গে তিনি বলেন, আমফানের টাকা যারা লুঠ করেছে তাদের জেলে ভরবে মোদী সরকার। 

এদিন শাহ বলেন, ‘বাংলার আর্থিক অবস্থা এতই খারাপ যে এখানে রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা সপ্তম বেতন কমিশনের সুবিধা পান না। আমি আপনাদের বলছি, এখনে একবার ভারতীয় জনতা পার্টির সরকার গড়ে দিন, সমস্ত রাজ্য সরকারি কর্মীকে সপ্তম বেতন কমিশন দেবে আমাদের সরকার’।

এদিন শাহের মুখে শোনা যায় আদিগঙ্গায় নেমে শিক্ষামিত্রদের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি অভিযানের কথাও। বলেন, ‘আমি একটা ছবি দেখলাম। খালে কোমর পর্যন্ত জলে আমাদের শিক্ষকরা নিজেদের ন্যায্য দাবির জন্য লড়ছেন। আমি সমস্ত শিক্ষকদের বলছি, পশ্চিমবঙ্গে আমরা সরকার গড়তেই আপনাদের উপযুক্ত মর্যাদা দিতে কমিটির গঠন করবে বিজেপি সরকার’। 

সঙ্গে মহিলাদের আশ্বস্ত করে শাহ বলেন, ‘সরকারি চাকরিতে মহিলাদের জন্য ৩৩ শতাংশের বেশি সংরক্ষণের ব্যবস্থা করবে ভারতীয় জনতা পার্টির সরকার’। 

দক্ষিণ ২৪ পরগনার মৎস্যজীবীদেরও আশ্বস্ত করেন শাহ। বলেন, ‘ভারতীয় জনতা পার্টির সরকার এলে ৪ লক্ষ মৎস্যজীবীকে বছরে ৬,০০০ টাকা করে মৎস্যজীবী সম্মান নিধি দেওয়া হবে। মৎস্যজীবীদের সংগৃহীত মাছের উপযুক্ত দাম দিতে আলাদা দফতর গঠন করবে ভারতীয় জনতা পার্টির সরকার। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় তৈরি হবে ফুড প্রসেসিং হাব’। 

এদিন আমফান ত্রাণ দুর্নীতি নিয়ে তৃণমূলকে তুমুল আক্রমণ করেন তিনি। বলেন, ‘বিজেপি ক্ষমতায় এসে আমফানের ত্রাণ দুর্নীতির উচ্চপর্যায়ের তদন্ত করে আপনাদের টাকা যারা লুঠ করেছে তাদের জেলে ভরবো’।

সঙ্গে সুন্দরবনের মৌলেদের জন্য সরকারি প্রকল্পেরও আশ্বাস দেন তিনি। বলেন, রাজ্য থেকে অনুপ্রবেশকারীদের তাড়ানো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজ নয়। সেজন্য ক্ষমতায় আনতে হবে বিজেপিকেই।

 

বন্ধ করুন