বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > পাহাড়ে বিমল গুরুংয়ের অস্তিত্ব কি সংকটে?
পাহাড়ে বিমল গুরুংয়ের অস্তিত্ব কি সংকটে? (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

পাহাড়ে বিমল গুরুংয়ের অস্তিত্ব কি সংকটে?

  • ভোটের সাজে সেজেছে পাহাড়। সাধারন পাহাড়বাসী চান শান্তি, পর্যটনের উন্নতি। কিন্ত তৃণমূলের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বিমল গুরুংয়ের অস্তিত্ব কী সংকটে?

ভোটের সাজে সেজে উঠেছে দার্জিলিং পাহাড়। শিলিগুড়ির সমতল এলাকা ও পাহাড় সর্বত্রই চলছে প্রচার। ইতিমধ্যেই শনিবারই শিলিগুড়িতে সভা করে গিয়েছেন নরেন্দ্র মোদীা। টি টিম্বার, ট্যুরিজমের উপর জোর দিয়েছেন তিনি। কিন্ত একটা প্রশ্ন বারবারই ঘুরে ফিরে আসছে এবারের ভোটে মোর্চা নেতা বিমল গুরুংয়ের অস্তিত্ব কি সংকটে? পাহাড়ের সাধারণ মানুষ কি তাঁর উপর আগের মতো আর আস্থা রাখতে পারছেন? ভোট বাজারে এসব নানা কথা ঘুরছে পাহাড়ি পথে।

তবে কয়েকজন এনিয়ে ছোটখাটো মন্তব্য করলেও বেশিরভাগই এই প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান।শিলিগুড়িতে পর্যটন ব্যাবসার সঙ্গে যুক্ত প্রকাশ টোপ্পো, রাজেশ তামাংরা বলেন, ‘যে ক্ষমতায় আসুক না কেন পাহাড়ে যেন শান্তি থাকে। পর্যটকরা যেন নিরাপদে পাহাড়ে আসতে পারেন।আমাদের জীবিকার উপর যেন আঘাত না পড়ে। দীর্ঘ লকডাউন, করোনা পাহাড়ের পর্যটনকে একেবারে শেষ করে দিয়েছে।

‘ আসলে মূলত রাজনীতির দড়ি টানাটানি, দিনের পর দিন বনধ, পাহাড়ের পর্যটন নির্ভর অর্থনীতিকে বার বার প্রভাবিত করেছে। তিতিবিরক্ত হয়ে গিয়েছেন সাধারণ মানুষ। সে কারণে এসব প্রসঙ্গ এড়িয়ে যেতে চান তাঁরা। এদিকে ভোট উৎসবের ঠিক আগে দীর্ঘ দিন অন্তরালে থাকার পর ফের পাহাড়ে ফিরেছেন মোর্চা নেতা বিমল গুরুং। পাহাড়ে অশান্তির জেরে নানা মামলায় জর্জরিত হয়ে কয়েক বছর আগে পাহাড় ছেড়েছিলেন তিনি। সেই তিনিই, ঠিক ভোটের মুখে ফের প্রকাশ্যে এলেন। কিন্ত এবার তাঁর আগের রাজনৈতিক অবস্থান থেকে একেবারে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে। একটা সময় তৃণমূলের সঙ্গে সখ্যতা ছিল তাঁর। এরপর গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে আন্দোলনে নেমে সেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছিলেন তিনি। কিন্ত এবার যখন প্রকাশ্যে এলেন, তখন আবার ভোলবদল। এবার বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে ফের তৃণমূলের হাত ধরলেন বিমল গুরুং।

এখানেই প্রশ্ন, পুরানো মামলা থেকে রেহাই পাওয়ার জন্যই কি তিনি তৃণমূলের হাত ধরলেন? পাহাড়ে বিনয় তামাংদের বিরুদ্ধ গোষ্ঠী হিসাবে আদৌ কি তিনি সেই আগের জনপ্রিয়তা ফিরে পাবেন? অন্যদিকে গোর্খাল্যান্ডের দাবিকে সামনে রেখেই দীর্ঘ আন্দোলন করেছিলেন বিমল। কিন্ত পাহাড়ে কার্যত নড়বড়ে তৃণমূলের সঙ্গে হাত মিলিয়ে সেই দাবি কি পূরণ হবে? তবে কী সেই দাবি থেকে সরে এসে এখন পাহাড়বাসীকে আবার নতুন স্বপ্ন দেখাতে শুরু করেছেন গুরুং? এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন পাহাড়বাসী।তবে সব মিলিয়ে এবারের ভোট বিমল গুরুংয়ের কাছে কার্যত মর্যাদা রক্ষার লড়াই। 

বন্ধ করুন