বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > শীতলকুচির গুলিকাণ্ডের জের, এবার মাথাভাঙার এসিডিপিওকে জিজ্ঞাসাবাদ সিআইডির
ভোটের দিন উত্তেজনা প্রশমনে শীতলকুচিতে পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনী (ফাইল ছবি)
ভোটের দিন উত্তেজনা প্রশমনে শীতলকুচিতে পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনী (ফাইল ছবি)

শীতলকুচির গুলিকাণ্ডের জের, এবার মাথাভাঙার এসিডিপিওকে জিজ্ঞাসাবাদ সিআইডির

  • কোচবিহারের তৎকালীন পুলিশ সুপারের কাছ থেকে জানতে চাইবে সিআইডি। সুত্রের খবর

এবার শীতলকুচিতে গুলিচালনার ঘটনায় মাথাভাঙার এসডিপিও সুরজিৎ মণ্ডলকে দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদ করল সিআইডি। ভবানী ভবনে ডেকে এনে বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চাওয়া হয় তাঁকে। মূলত কোন পরিস্থিতিতে বাহিনী গুলি চালিয়েছিল সেটাই জানতে চাইছে সিআইডি। সেদিন ওই ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে বা তার কাছাকাছি জায়গায় গুলি চালনার মতো পরিস্থিতি হয় এমন কোনও গণ্ডগোল হয়েছিল কিনা সেটাও জানতে চাইছে সিআইডি। এদিকে সূত্রের খবর, ঘটনার দিন ওই বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর ৬জন জওয়ান কর্মরত ছিলেন। একজন ডেপুটি কমান্ডান্ট, একজন ইনস্পেক্টর ও চারজন কনস্টেবল কর্তব্যরত ছিলেন ওই বুথে। তাঁদেরকেও ডেকে পাঠিয়েছিল সিআইডি। কিন্তু সূত্রের খবর, করোনা পরিস্থিতিতে ভার্চুয়াল মাধ্যমে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু সিআইডি সেই আবেদন খারিজ করে দেয়। কিন্তু তারপরেও তারা ভবানী ভবনে আসেননি। এরপরই তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যও তৎপরতা চলছে। খবর সিআইডি সূত্রে। 

এদিকে শীতলকুচিকাণ্ডে একের পর এক পুলিশ আধিকারিককে জেরা করছে সিআইডি। সোমবার মাথাভাঙা থানার আইসিকে প্রায় সাত ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মঙ্গলবার মাথাভাঙা থানার এক এসআইকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। সূত্রের খবর তিনি ঘটনাস্থলে ছিলেন সেই সময়। এবার তৎকালীন জেলা পুলিশ সুপারকেও তলব করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এসবের মধ্যেই আগামী ১৩ই মে শীতলকুচি সহ কোচবিহারের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করার কথা রয়েছে রাজ্যপালের।

প্রসঙ্গত চতুর্থ দফার ভোটের দিন গত ১০ এপ্রিল, শীতলকুচির জোরপাটকি গ্রামের ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছিল গোটা বাংলাকে। বুথ সংলগ্ন এলাকায় গুলিতে প্রাণ গিয়েছিল চারজনের। বিভিন্ন মহল থেকে দাবি করা হয়েছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতেই প্রাণ গিয়েছে ওই গ্রামবাসীদের। এখানেই প্রশ্ন কোন পরিস্থিতিতে গুলি চালিয়েছিল কেন্দ্রীয় বাহিনী? ঘটনার পরপরই সরব হয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী। মাথাভাঙাতেও গিয়েছিলেন তিনি। তদন্তের আশ্বাস দিয়েছিলেন তিনি। সেই মতো তদন্ত প্রক্রিয়াও শুরু করেছে সিআইডি। ডিআইজি সিআইডি স্পেশাল কল্যান মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে তৈরি হয়েছে স্পেশাল ইনভেসটিগেশন টিম। 

 

বন্ধ করুন