বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > নাম নিলেন না মুখে, অডিয়ো বার্তায় ISF-কে ধর্মনিরপেক্ষ সার্টিফিকেট দিলেন বুদ্ধদেব
বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য
বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

নাম নিলেন না মুখে, অডিয়ো বার্তায় ISF-কে ধর্মনিরপেক্ষ সার্টিফিকেট দিলেন বুদ্ধদেব

  • বিবৃতির পর এবার বুদ্ধবাবুর অডিয়ো বার্তা প্রকাশ করল CPIM 

রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বিবৃতির পর এবার অডিয়ো বার্তা প্রকাশ করল সিপিএম। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফা ভোটগ্রহণের আগে দলের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে বুদ্ধবাবুর অডিয়ো বার্তা প্রকাশিত হয়। অডিয়ো বার্তায় পশ্চিমবঙ্গকে শান্তি – শৃঙ্খলা বজায় রেখে উন্নয়নের রাস্তায় এগিয়ে নিয়ে যেতে বাম – গণতান্ত্রিক জোটের প্রার্থীদের জয়ী করার আহ্বান জানান তিনি। 

অডিয়ো বার্তায় রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন বুদ্ধবাবু। বলেন, রাজ্যের রাজনীতিতে এ এক সন্ধিক্ষণ। বাম জমানায় কৃষি আমাদের ভিত্তি, শিল্প আমাদের ভবিষ্যৎ স্লোগানে প্রগতি ঘটতে শুরু করেছিল। বামফ্রন্টের অপসারণের পর তৃণমূলের সরকার রাজ্যজুড়ে এক ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। সমস্ত দিক থেকেই রাজ্যের অর্থনীতিতে নেমেছে বিপর্যয়, হতাশা। কৃষিতে সংকট, কৃষিজাত পণ্যের দাম আকাশছোঁয়া হয়েছে, অন্যদিকে এরাজ্যে শিল্পায়ন সম্পূর্ণ স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে। গত ১০ বছরে উল্লেখযোগ্য ১টি শিল্পও আসেনি। সিঙুর নন্দীগ্রামে এখন শ্মশানের নীরবতা’।

শিক্ষা ও স্বাস্থ্য নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বুদ্ধবাবু। তিনি বলেন, ‘এই ২ ক্ষেত্র ক্রমশ ভেঙে পড়ছে। নাগরিক জীবনের চাহিদাগুলি অবহেলিত। সামাজিক জীবনে গণতন্ত্র আক্রান্ত হচ্ছে। স্বৈরাচারী শাসকদল তাদের কর্মিবাহিনী ও সমাজবিরোধীরা একজোট হয়েছে।’

রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বিবৃতির পর এবার অডিয়ো বার্তা প্রকাশ করল সিপিএম। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফা ভোটগ্রহণের আগে দলের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে বুদ্ধবাবুর অডিয়ো বার্তা প্রকাশিত হয়। অডিয়ো বার্তায় পশ্চিমবঙ্গকে শান্তি – শৃঙ্খলা বজায় রেখে উন্নয়নের রাস্তায় এগিয়ে নিয়ে যেতে বাম – গণতান্ত্রিক জোটের প্রার্থীদের জয়ী করার আহ্বান জানান তিনি। 

অডিয়ো বার্তায় রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন বুদ্ধবাবু। বলেন, রাজ্যের রাজনীতিতে এ এক সন্ধিক্ষণ। বাম জমানায় কৃষি আমাদের ভিত্তি, শিল্প আমাদের ভবিষ্যৎ স্লোগানে প্রগতি ঘটতে শুরু করেছিল। বামফ্রন্টের অপসারণের পর তৃণমূলের সরকার রাজ্যজুড়ে এক ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। সমস্ত দিক থেকেই রাজ্যের অর্থনীতিতে নেমেছে বিপর্যয়, হতাশা। কৃষিতে সংকট, কৃষিজাত পণ্যের দাম আকাশছোঁয়া হয়েছে, অন্যদিকে এরাজ্যে শিল্পায়ন সম্পূর্ণ স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে। গত ১০ বছরে উল্লেখযোগ্য ১টি শিল্পও আসেনি। সিঙুর নন্দীগ্রামে এখন শ্মশানের নীরবতা’।

শিক্ষা ও স্বাস্থ্য নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বুদ্ধবাবু। তিনি বলেন, ‘এই ২ ক্ষেত্র ক্রমশ ভেঙে পড়ছে। নাগরিক জীবনের চাহিদাগুলি অবহেলিত। সামাজিক জীবনে গণতন্ত্র আক্রান্ত হচ্ছে। স্বৈরাচারী শাসকদল তাদের কর্মিবাহিনী ও সমাজবিরোধীরা একজোট হয়েছে।’

|#+|

নারী নিরাপত্তাও প্রশ্নের মুখে বলে দাবি করে বুদ্ধবাবু বলেন, ‘যুব সম্প্রদায়, যারা দেশের ভবিষ্যৎ তারা এখন আশাহীন, উদ্যমহীন। রাজ্য ছাড়ছে অনেক যুবক। চাকরির সন্ধানে দেশের নানা প্রান্তে ঘুরে ঘুরে বাঁচার চেষ্টা করছে।’

এর পর ISF-কে সার্টিফিকেট দিয়ে ধর্মনিরপেক্ষ দল বলেন বুদ্ধবাবু, ‘একদিকে তৃণমূলের স্বৈরতান্ত্রিক নৈরাজ্য অন্যদিকে বিজেপির আগ্রাসন রাজ্যে যেমন বিপদের পরিবেশ তৈরি করেছে তেমনি এনে দিয়েছে এক সম্ভাবনা। বামফ্রন্ট কংগ্রেস ও একটি ধর্মনিরপেক্ষ দল একটি মঞ্চ তৈরি করেছে এই নির্বাচনে লড়াই করার জন্য’। রাজ্যকে এগিয়ে নিয়ে যেতে বাম – গণতান্ত্রিক জোটের প্রার্থীদের জেতানোর আহ্বান জানান তিনি। 

 

বন্ধ করুন