বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > দীনেশবাবুর মতো স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষ তৃণমূলে প্রাধান্য পায় না: রাজীব
বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।  (PTI)
বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।  (PTI)

দীনেশবাবুর মতো স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষ তৃণমূলে প্রাধান্য পায় না: রাজীব

  • দীনেশ ত্রিবেদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে প্রাক্তন মন্ত্রী বলেন, ‘উনি একজন বড় মাপের সাংসদ। দীর্ঘদিন ধরে কাজ করতে পারছিলেন না।

সাংসদ পদে ইস্তফা দিতেই দীনেশ ত্রিবেদীকে বিজেপিতে স্বাগত জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, অর্জুন সিংরা। কিন্তু সেই সিদ্ধান্ত তাঁকেই নিতে হবে বলে মন্তব্য করলেন একদা তাঁর সতীর্থ বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন দীনেশবাবুর ইস্তফার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন তিনিও।

এদিন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘দীনেশ ত্রিবেদীর ইস্তফায় আমি অবাক নই। আগামীতে বড় মাপের আরও অনেকে তৃণমূল কংগ্রেস ছাড়বেন। দীনেশবাবু স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষ। এরকম মানুষ তৃণমূলে প্রাধান্য পায় না। তৃণমূলে স্তাবকদের গুরুত্ব দেওয়া হয়। ভাল মানুষদের পরামর্শ নিয়ে মানুষের কাজ করার মতো পরিস্থিতি তৃণমূলে নেই’। 

দীনেশ ত্রিবেদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে প্রাক্তন মন্ত্রী বলেন, ‘উনি একজন বড় মাপের সাংসদ। দীর্ঘদিন ধরে কাজ করতে পারছিলেন না। যার আত্মসম্মান বোধ রয়েছে তিনি এভাবে বেশি দিন থাকতে পারবেও না। তাঁর সিদ্ধান্তকে আমি স্বাগত জানাই’। 

দীনেশবাবুকেই বিজেপিতে যোগদানের সিদ্ধান্ত নিতে হবে বলে মন্তব্য করে রাজীববাবু বলেন, ‘উনি রাজ্যসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আগামী দিনে ওনাকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। মানুষের জন্য কাজ করতে গেলে একটা রাজনৈতিক দলকে ওনার বেছে নিতে হবে। আর এই মুহূর্তে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন ভারতীয় জনতা পার্টি ছাড়া অন্য কোনও দল নেই যার সঙ্গে থেকে মানুষের জন্য ভাল ভাবে কাজ করা যেতে পারে’।

বলে রাখি, জানুয়ারির শেষে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। দলত্যাগের পর তিনিও দাবি করেছিলেন, ‘তৃণমূলে থেকে কাজ করা যাচ্ছিল না।’

 

বন্ধ করুন