বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > টাকা বিদেশে গিয়েছে অভিষেকের স্ত্রী ও শ্যালিকার অ্যাকাউন্ট দিয়ে, আদালতে জানাল ED
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

টাকা বিদেশে গিয়েছে অভিষেকের স্ত্রী ও শ্যালিকার অ্যাকাউন্ট দিয়ে, আদালতে জানাল ED

  • ইডির দাবি, ২০২০ সালে অশোক মিশ্র কয়লা পাচারের মোট ১৬৮ কোটি টাকা পাচার করেছেন তিনি। অশোকের সাহায্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে মোটা টাকা নজরানা দিয়ে কারবার চালাতেন লালা।

পশ্চিমবঙ্গে ভোটের মধ্যে কয়লাপাচার নিয়ে আদালতে চাঞ্চল্যকর দাবি করল ইডি। বৃহস্পতিবার দিল্লির বিশেষ আদালতে তদন্তকারী সংস্থাটির পক্ষে জানানো হয়েছে, কয়লাপাচারের বিপুল অংকের টাকা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী ও শ্যালিকার অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে বিদেশে পাচার হয়েছে। আর এই টাকা লালার কাছ থেকে নিয়ে রুজিরার অ্যাকাউন্টে পৌঁছে দিতেন অশোক মিশ্র। লালার আত্মীয় তথা বাঁকুড়া থানার আইসি অশোক মিশ্রকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করেছে ইডি।

ইডির তরফে জানানো হয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে থাইল্যান্ডে ও তাঁর শ্যালিকা মেনকা গম্ভীরের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ব্রিটেনে টাকা পাঠানো হয়েছে। সঙ্গে তারা জানিয়েছে, লালার কাছ থেকে এই টাকা নিয়ে তাঁদের অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দিতেন অশোক মিশ্র। তবে তাদের দাবির সমর্থনে আদালতে গ্রহণযোগ্য কোনও প্রমাণ পেশ করতে পারেনি ইডি। 

এদিন অশোক মিশ্রেকে ১১ দিনের জন্য হেফাজতে পাওয়ার জন্য আদালতে আবেদন করে ইডি। সঙ্গে জানায়, অশোক মিশ্র জানিয়েছেন, বিনয় মিশ্রের নির্দেশে তিনি ১.৫ কোটি টাকা দিল্লিতে পাঠিয়েছিলেন। বিনয় মিশ্র অভিষেকের ঘনিষ্ঠ বলে পেশাদারি ক্ষতি থেকে বাঁচতে একাজ করতে বাধ্য হয়েছিলেন তিনি’। সঙ্গে অশোক মিশ্র স্বীকার করেছেন, ‘অভিষেকের এক আত্মীয়ের জন্য হাওয়ালার মাধ্যমে বিদেশে টাকা পাঠিয়েছিলেন তিনি। থাইল্যান্ডেও টাকা পাঠানো হয়েছিল তাঁর মাধ্যমে।’

ইডির দাবি, ২০২০ সালে অশোক মিশ্র কয়লা পাচারের মোট ১৬৮ কোটি টাকা পাচার করেছেন তিনি। অশোকের সাহায্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে মোটা টাকা নজরানা দিয়ে কারবার চালাতেন লালা। ২০১৮ সাল থেকে ১,৩৫২ কোটি টাকার সম্পত্তি করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার বিজেপির তরফে এক সাংবাদিক বৈঠকে দলের মুখপাত্র তথা আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য বলেন, ‘ভোট চলছে বলে তো আর তদন্ত বন্ধ থাকবে না। আদালতে প্রমাণ পেশও বন্ধ থাকবে না।’

 

বন্ধ করুন