বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‘নির্বাচন কমিশনের সহায়তায় রিগিং হয়েছে’, বিধানসভায় দাঁড়িয়ে অভিযোগ মমতার
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য এএনআই)

‘নির্বাচন কমিশনের সহায়তায় রিগিং হয়েছে’, বিধানসভায় দাঁড়িয়ে অভিযোগ মমতার

  • মমতা দাবি করেন, কমিশনের সহায়তা না পেলে বিজেপি ৩০ টি আসনও পেত না। 

এতদিন রাজনৈতিক মঞ্চ থেকে তোপ দাগতেন। এবার বিধানসভায় দাঁড়িয়েই নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগ তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিযোগ করলেন, কমিশনের সহায়তায় কোথাও কোথাও রিগিং হয়েছে।

শনিবার ধ্বনি ভোটের মাধ্যমে স্পিকার নির্বাচিত হন বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর ভাষণ দিতে উঠে কমিশনের বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ তোলেন মমতা। কমিশনকে তোপ দেগে মমতা বলেন, ‘আমি জানি, নির্বাচন কমিশন রিগিং ঠেকাবে। টি এন সেশনের সময় থেকে তাই দেখে এসেছি। কিন্তু এবার তো কোথাও কোথাও কমিশনের সহায়তার রিগিং রয়েছে। চিরকুটে লিখে বদলি করা হচ্ছে। আজ শুধু বাংলা জিতে যায়নি, বাংলার মানুষ প্রমাণ করে দিয়েছেন বাংলার মেরুদণ্ড সর্বদা শক্ত।’ 

মমতার শপথ, স্পিকার নির্বাচন বয়কটের জন্য বিজেপিকে তোপ দেগে বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের দয়ায় জিতে এসেছিলেন, ঠিক আছে, নির্বাচন কমিশন সাহায্য না করলে ৩০ টি আসনও (৭৭ টি আসন জিতেছে বিজেপি) পেত না। আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি। তাও লজ্জা নেই।’ মমতার অভিযোগ, বিজেপির পার্টি অফিস থেকে যা বলা হয়েছে, তাই করেছে নির্বাচন কমিশন। সেইমতো চিরকুটে দিয়ে বদলি করা হত। তার ফলে প্রশাসনের অন্দরে  অনেক ‘অযোগ্য’ লোক ভরে গিয়েছিল।

পাশাপাশি কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকেও তোপ দাগেন মমতা। তিনি অভিযোগ করেন, জলের পাইপের মতো টাকা খরচ করেছে বিজেপি। এই টাকা খরচ করে দেশের সবার টিকাকরণ হয়ে যেত। দেশের সকলের টিকাকরণের জন্য ৩০,০০০ কোটি টাকা প্রয়োজন। যা কেন্দ্রের কাছে কোনও বড় বিষয় নয়। সঙ্গে মমতার তাঁর কটাক্ষ, মানুষের জয় এবং জনমত মেনে নিতে পারছে না বিজেপি। ভোট-পরবর্তী হিংসার জন্য বিজেপিকে দায়ী করেন মমতা। অভিযোগ করেন, যেখানে বিজেপি জিতেছে, সেখানে হিংসা হচ্ছে। যে ভিডিয়ো ছড়ানো হচ্ছে, তার ৯৯ শতাংশ ভুয়ো। হিংসা রুখতে কড়া ব্যবস্থার নেওয়ার পাশাপাশি মমতা বলেন, 'কেউ কেউ এমন কথা বলছে যে গা শিউরে উঠছে। মনে হচ্ছে, উত্তেজনায় সামনে পেলে ভালো করে গায়ে বুলিয়ে দিতাম।'

বন্ধ করুন