বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > টানাপোড়েনে বিরতি, গণনাকেন্দ্র থেকে নন্দীগ্রামের ইভিএম গেল প্রশাসনিক হেফাজতে
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারী (ফাইল ছবি)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারী (ফাইল ছবি)

টানাপোড়েনে বিরতি, গণনাকেন্দ্র থেকে নন্দীগ্রামের ইভিএম গেল প্রশাসনিক হেফাজতে

  • গত কয়েকদিন ধরে এই ইভিএম নিয়ে টানাপোড়েন কিছু কম হয়নি

গত কয়েকদিন ধরে তীব্র টানাপোড়েন। অবশেষে কিছুটা স্বস্তি। বৃহস্পতিবার সকালে কেন্দ্রীয় বাহিনী ও পুলিশের পাাহারায় নন্দীগ্রামের ইভিএমগুলিকে পাঠানো হয়েছে প্রশাসনিক হেফাজতে। স্থানীয় সূত্রে খবর, তৃণমূলের বিরোধিতার জেরে কিছুতেই এই ইভিএমগুলিকে গণনাকেন্দ্র থেকে বের করা যাচ্ছিল না। শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবার সকালে সেগুলিকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সহযোগিতায় গণনাকেন্দ্র থেকে বের করে হলদিয়ায় মহকুমা শাসকের হেফাজতে পাঠানো হয়েছে। আপাতত সেগুলিকে মহকুমা শাসকের নিয়ন্ত্রণে থাকা গুদামে রাখা হয়েছে।

আসলে এবার হাইভোল্টেজ কেন্দ্র ছিল নন্দীগ্রাম। একদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অন্যদিকে শুভেন্দু অধিকারীর লড়াই। এই কেন্দ্রে জিতেছেন শুভেন্দু অধিকারী। এমনটাই ঘোষণা করেছে কমিশন। তবে তৃণমূলের অভিযোগ গণনায় কারচুপি করা হয়েছে। খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যাও বলেছেন, ‘বন্দুকের নলের মুখে কাজ করতে হয়েছে রিটার্নিং অফিসারকে।’ এদিকে পুনর্গণনার দাবিতে স্থানীয় মঞ্জশ্রী মোড়ের কাছে অবস্থান বিক্ষোভ চালাচ্ছিলেন তৃণমূল কর্মীরা। এর জেরেই ইভিএম বের করতে সমস্য়া হচ্ছিল। অবশেষে প্রশাসনিক আধিকারিকরা তাঁদের নানাভাবে বোঝান। গোটাটাই নির্দেশের উপর নির্ভর করছে বলে জানান প্রশাসনিক আধিকারিকরা। এরপরই অবস্থান বিক্ষোভ তোলেন তৃণমূল কর্মীরা। তবে তৃণমূলের একাংশের দাবি, অবরোধ তুলতে বুধবার রাতে লাঠি চালিয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। তাতে কয়েকজন জখমও হয়েছেন। তবে লাঠি চালানোর অভিযোগ মানতে চায়নি প্রশাসন। 

 

বন্ধ করুন