বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‘‌এরকম হিংসার ঘটনা গণতন্ত্রের পক্ষে লজ্জার’‌, শপথ পাঠের আগে টুইট রাজ্যপালের
জগদীপ ধনখড় (PTI)
জগদীপ ধনখড় (PTI)

‘‌এরকম হিংসার ঘটনা গণতন্ত্রের পক্ষে লজ্জার’‌, শপথ পাঠের আগে টুইট রাজ্যপালের

  • এই হিংসা গণতন্ত্রের লজ্জা বলেও ব্যাখ্যা করেছেন তিনি। এই ধরনের ঘটনাকে উপেক্ষা করা বা উৎসাহ দেওয়া কাম্য নয় বলেও মন্তব্য তাঁর।

বাংলায় নির্বাচন পরবর্তী হিংসা নিয়ে উদ্বেগপ্রকাশ করলেন রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রী পদে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শপথবাক্য পাঠ করানোর কয়েক ঘণ্টা আগেই টুইটে তোপ দাগলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এই হিংসা গণতন্ত্রের লজ্জা বলেও ব্যাখ্যা করেছেন তিনি। এই ধরনের ঘটনাকে উপেক্ষা করা বা উৎসাহ দেওয়া কাম্য নয় বলেও মন্তব্য তাঁর।

ঠিক কী লিখেছেন রাজ্যপাল?‌ রাজ্যপাল লেখেন, ‘‌এরকম হিংসার ঘটনা গণতন্ত্রের পক্ষে লজ্জার। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। এই অবনতি অবহেলা করার মতো নয়। হৃদয় বিদারক যে হিংসার রিপোর্ট আসছে তাতে উদ্বিগ্ন বোধ করছি। এই ধরনের ঘটনাকে উপেক্ষা করা বা উৎসাহ দেওয়া কাম্য নয়।’‌ এই টুইটে তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা পুলিশ, পশ্চিমবঙ্গ পুলিশকে ট্যাগ করেছেন। মঙ্গলবারই পশ্চিমবঙ্গে ভোট পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে ফোন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তারপরই এই টুইট বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

উল্লেখ্য, আগেই এই ইস্যুতে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট চেয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। মঙ্গলবারই এই ইস্যু নিয়ে আলোচনা করতে রাজ্যে আসেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডাও। এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সরব হয়েছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে না বলেও অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের দিনই ধর্ণা কর্মসূচি নিয়েছে বিজেপি। কিন্তু হেস্টিংসের কর্মসূচিতেও অনুমতি দিল না পুলিশ। বাধ্য হয়েই বিজেপি নেতৃত্ব ঠিক করে হেস্টিংসের দফতরের চারতলায় বসবে ধর্ণা কর্মসূচি।

বন্ধ করুন