বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > নিজের চোখেই দেখুন..., 'ভুয়ো খবর'-এর তত্ত্ব উড়িয়ে ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বার্তা নড্ডার
আক্রান্ত বিজেপি কর্মীর সঙ্গে দেখা করতে গেলেন জেপি নড্ডা (ছবি সৌজন্যে এএনআই)
আক্রান্ত বিজেপি কর্মীর সঙ্গে দেখা করতে গেলেন জেপি নড্ডা (ছবি সৌজন্যে এএনআই)

নিজের চোখেই দেখুন..., 'ভুয়ো খবর'-এর তত্ত্ব উড়িয়ে ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বার্তা নড্ডার

  • এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনায় আক্রান্ত বিজেপি কর্মী হারান অধিকারীদের বাড়িতে যান জেপি নড্ডা।

পশ্চিমবঙ্গে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে যেরকম ফলের লক্ষ্য বিজেপি স্থির করেছিল, তার ধারেকাছেও ঘেঁষতে পারেননি গেরুয়া শিবির। বিজেপির ব্যর্থতার অর্থ, তৃতীয়বারের জন্য বিপুল ভোট পেয়ে মসনদে বসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এরপরই গেরুয়া শিবিরের কর্মীদের উপর একের পর এক হামলার অভিযোগ আসতে শুরু করে। এই পরিস্থিতিতে এদিন রাজ্যে আসেন বিজেপির সর্বভারতী সভাপতি জেপি নড্ডা।

এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনায় আক্রান্ত বিজেপি কর্মী হারান অধিকারীদের বাড়িতে যান জেপি নড্ডা। সেখানে কর্মীদের সঙ্গে দেখা করে এসে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, 'ফলাফল প্রকাশের পরই বিজেপি কর্মী হারান অধিকারীর বাড়িতে যায় তৃণমূলের গুন্ডারা। এখানে এশে তৃণমূলের গুন্ডারা ভাঙচুর চালায়। মহিলা এবং শিশুদের ভয় দেখায় এবং হারানের স্ত্রীয়ের দাঁত ভেঙে দেয়। এরপর হারানকে টেনে বাড়ি থেকে বের করে আনে তৃণমূলের গুন্ডারা। এরপর সেখানেই হারানকে মারে তারা। এর জেরেই হারানের মৃত্যু হয়।'

এরপর এই ঘটনার প্রেক্ষিতে জেপি নড্ডা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে বলেন, 'মমতাজি, ভোটে জেতার পর আপনার কর্মীরা যা করল, তার থেকেই স্পষ্ট যে আপনার দলে গণতন্ত্রের উপর কেমন বিশ্বাস রাখে। তৃণমূল কর্মীরা এবং নেতারা বলছেন যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া এসব ঘটনা ভুয়ো। আপনারা নিজেরাই দেখলেন যে হারান অধিকারীর স্ত্রী এবং ছেলে কীভাবে কাঁদছে। আমি মিডিয়ার কাছে আবেদন করছি যাতে পুরো দেশে সত্যিটা তুলে ধরা হোক।'

নড্ডা এদিন বলেন, ‘এটা বাংলার সংস্কৃতি হতে পারে না৷ এরাজ্যে গুন্ডারাজ চলছে৷ ভোটে জেতার পর তৃণমূলের গুন্ডারা অত্যাচার শুরু করে দিয়েছে। বাংলায় নারী নির্যাতন প্রতিনিয়ত বেড়েই যাচ্ছে। বাংলার সংস্কৃতিকে একমাত্র রক্ষা করতে পারে বিজেপি। আমরা এখনও লড়াই ছাড়িনি৷ আমরা বাংলার মানুষের পাশে আছি। যেসব তৃণমূলের গুন্ডারা ভাবছে বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলা করে বিজেপির কণ্ঠরোধ করতে পারবেন তারা ভুল করছে৷ আমরা গণতন্ত্রকে সম্মান করি৷ তবে বাংলার মানুষ ও বাংলাকে সম্মান করতে পারে না এই সরকার।’

 

বন্ধ করুন