বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > কাঁথি দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্র ২০২১: ভোটের প্রার্থী, অতীতের ফলাফল-সহ যাবতীয় তথ্য
আগামী ২৭ মার্চ প্রথম দফায় কাঁথি দক্ষিণে ভোট হবে। (ছবি সৌজন্য নিজস্ব চিত্র)
আগামী ২৭ মার্চ প্রথম দফায় কাঁথি দক্ষিণে ভোট হবে। (ছবি সৌজন্য নিজস্ব চিত্র)

কাঁথি দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্র ২০২১: ভোটের প্রার্থী, অতীতের ফলাফল-সহ যাবতীয় তথ্য

  • আগামী ২৭ মার্চ প্রথম দফায় কাঁথি দক্ষিণে ভোট হবে।

এই বিধানসভায় এবারের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী হলেন জ্যোতির্ময় কর। অপরদিকে এই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বিজেপি প্রার্থী অরুপকুমার দাস। অন্য দিকে, বাম-কংগ্রেস-ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের (আইএসএফ) তরফে এই কেন্দ্রে দাঁড়াচ্ছেন সিপিআইয়ের অনুরূপ পণ্ডা। 

মেদিনীপুর বিভাগের একটি জেলা পূর্ব মেদিনীপুর। এই জেলার উত্তরে পশ্চিম মেদিনীপুর ও হাওড়া জেলা রয়েছে। পূর্বে হুগলি নদী ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা আর দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর ও পশ্চিমে পশ্চিম মেদিনীপুর ও ওড়িশা রাজ্য অবস্থিত। কাঁথি দক্ষিণ এই জেলার একটি বিধানসভা কেন্দ্র। আগামী ২৭ মার্চ প্রথম দফায় কাঁথি দক্ষিণে ভোট হবে।

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে শুভেন্দু অধিকারীর গড় বলে পরিচিত এই কেন্দ্রে জয়ী হয়েছিলেন তৃণমূল প্রার্থী দিব্যেন্দু অধিকারী৷ তাঁর প্রাপ্ত ভোট ছিল ৯৩,৩৫৯৷ দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন সিপিআইয়ের উত্তম প্রধান৷ তাঁর প্রাপ্ত ভোট ছিল ৫৯,৪৬৯৷ ৩৩,৮৯০ ভোটে জিতেছিলেন দিব্যেন্দু।

২০১৭ সালে রাজ্য বিধানসভা উপনির্বাচন হয়েছিল। বিধায়ক দিব্যেন্দু অধিকারী পদত্যাগ করেন। কারণ, ২০১৬ সালের ১৯ নভেম্বরে তিনি সাংসদ পদে তমলুক লোকসভা কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০০৯ সালেও উপনির্বাচন হয়েছিল। কারণ, সেবছর তৎকালীন বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী তমলুক লোকসভা কেন্দ্র থেকে সংসদ পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। সেবারেই সিপিআইয়ের সত্যেন্দ্রনাথ পান্ডাকে পরাজিত করে কাঁথি দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন দিব্যেন্দু।

২০০৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিআইয়ের সত্যেন্দ্রনাথ পান্ডাকে হারিয়ে কাঁথি দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে জিতেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। ২০০১ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের শিশির অধিকারী সিপিআইয়ের সুখেন্দু মাইতিকে ওই আসনে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে পরপর দু’‌বার কংগ্রেসের শৈলজা দাস সিপিআইয়ের সুখেন্দু মাইতিকে এই আসনে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৮৭ সালে সিপিআইয়ের সুখেন্দু মাইতি কংগ্রেসের শৈলজা দাসকে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৮২ সালে তৎকালীন কংগ্রেস প্রার্থী শিশির অধিকারী নির্দল প্রার্থী দীপক মণ্ডলকে এই আসনে পরাজিত করেছিলেন।১৯৭৭ সালে জনতা পার্টির সত্যব্রত মাইতি নির্দলের সুধীরচন্দ্র দাসকে পরাজিত করেছিলেন।

১৯৬২, ১৯৬৭, ১৯৬৯, ১৯৭১ ও ১৯৭২ সালে টানা পাঁচবার পিএসপি‌র সুধীরচন্দ্র দাস কাঁথি দক্ষিণ আসনে জিতেছিলেন। ১৯৫৭ সালে কংগ্রেসের রাসবিহারী পাল এই আসনে জয়ী হন। দেশের প্রথম নির্বাচনে কেএমপিপি'র নটেন্দ্রনাথ দাস কাঁথি দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন।

বন্ধ করুন