বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‘লাভপুরের মানুষের স্বার্থে কাজ করতে চাই’‌, নির্দল হিসাবে লড়াইয়ের ঘোষণা মনিরুলের
বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় সঙ্গে মনিরুল ইসলাম
বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় সঙ্গে মনিরুল ইসলাম

‘লাভপুরের মানুষের স্বার্থে কাজ করতে চাই’‌, নির্দল হিসাবে লড়াইয়ের ঘোষণা মনিরুলের

  • মাঝে পরিস্থিতি সময়ের উপর ছেড়ে দিয়েছিলেন মনিরুল। কিন্তু তারপরও দেখলেন একচুলও বদলায়নি।

সম্প্রতি তাঁকে দেখা গিয়েছিল হেস্টিংসের বিজেপি অফিসে। তবে তারপরেও জোটেনি টিকিট। তাই এবার নির্দল প্রার্থী হয়ে ভোটে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া লাভপুরের বিদায়ী বিধায়ক মনিরুল ইসলাম। দলে তাঁকে নেওয়া নিয়েও বিস্তর বিতর্ক হয়েছিল। মাঝে পরিস্থিতি সময়ের উপর ছেড়ে দিয়েছিলেন মনিরুল। কিন্তু তারপরও দেখলেন একচুলও বদলায়নি। কিন্তু তাঁর এই নির্দল হয়ে লড়ার সিদ্ধান্ত জেলার রাজনীতিতে শোরগোল ফেলবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এই বিষয়ে সংবাদমাধ্যমে মনিরুল বলেন, ‘লাভপুরের মানুষের স্বার্থে কাজ করতে চাই। তাই নির্দল প্রার্থী হিসেবে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত আমি নিয়েছি।’‌ ঢাকঢোল পিটিয়ে বিজেপিতে যাওয়া এবং তারপর টিকিট না পাওয়ায় এই সিদ্ধান্ত বলে অনেকে মনে করছেন। ২০১১ ও ২০১৬ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিটে মনিরুল লাভপুরের বিধায়ক নির্বাচিত হন। সূত্রের খবর, জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের চক্ষুশূল হয়ে পড়েন তিন সিপিআইএম সমর্থক ভাই খুনে অভিযুক্ত এই নেতা। তার জেরে গত লোকসভা নির্বাচনের পরেই তিনি বিজেপিতে যোগ দেন। যদিও মনিরুলের যোগদানের প্রতিবাদে অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে জেলা বিজেপির একটি অংশে। তখন থেকে মনিরুলকে জেলা বিজেপির কোনও কর্মসূচিতে কখনও দেখা যায়নি।

হঠাৎই দু’বছর পরে বিধানসভা নির্বাচনের মুখে জেলার রাজনীতিতে ফের আবির্ভাব ঘটে মনিরুল ইসলামের। মার্চ মাসে বোলপুরে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে লাভপুরে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীকে ৫০ হাজার ভোটে হারানোর চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন মনিরুল ইসলাম। কিন্তু তারপরও মনিরুলকে টিকিট দেওয়া হয়নি। প্রার্থী তালিকায় নেই তাঁর নাম। তাই অগত্যা নিজেই নির্দল প্রার্থী হয়ে লড়তে চান। দু’‌একদিনের মধ্যে মনোনয়নপত্র জমা দেবেন তিনি বলে সূত্রের খবর।

বন্ধ করুন