বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > তৃণমূলের ‘বহিরাগত’ প্রচারে আশঙ্কায় প্রবাসী শ্রমিকরা, দাবি বিজেপির
শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠকে শমীক ভট্টাচার্য।
শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠকে শমীক ভট্টাচার্য।

তৃণমূলের ‘বহিরাগত’ প্রচারে আশঙ্কায় প্রবাসী শ্রমিকরা, দাবি বিজেপির

  • শমীকবাবু বলেন, ‘এরাজ্যে লগ্নি আনতে পারেনি তৃণমূল। যে শিল্পপতিরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে বসে ভাল ভাল কথা বলেছেন তারাই রাজ্য থেকে বিনিয়োগ সরিয়ে নিয়ে গিয়েছেন।

তৃণমূলের ‘বহিরাগত’ প্রচারের ফলে ভিনরাজ্যে গিয়ে বিপদের আশঙ্কা করছেন পশ্চিমবঙ্গের প্রবাসী শ্রমিকরা। শনিবার দলের নির্বাচনী সদর দফতরে এক সাংবাদিক বৈঠকে এমনই দাবি করলেন বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য। 

বিধানসভা ভোটে বিজেপিকে রুখতে ‘বাঙালি বনাম বহিরাগত’ ইস্যুকে হাতিয়ার করেছে তৃণমূল। বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের ‘বহিরাগত’ বলে দাগিয়েছে তারা। বাদ যাননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। বিজেপির দাবি, তৃণমূলের এই প্রচারে আশঙ্কায় ভুগছেন প্রবাসী শ্রমিকরা। 

এদিন শমীকবাবু বলেন, ‘আমাদের মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগনা থেকে প্রবাসী শ্রমিকরা ফোন করছেন। তারা ভিনরাজ্যে থাকতে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন। তৃণমূলের যে ভাবে অবাঙালিদের বহিরাগত বলে প্রচার করছে তাতে আশঙ্কিত তারা।’

শমীকবাবু বলেন, ‘এরাজ্যে লগ্নি আনতে পারেনি তৃণমূল। যে শিল্পপতিরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে বসে ভাল ভাল কথা বলেছেন তারাই রাজ্য থেকে বিনিয়োগ সরিয়ে নিয়ে গিয়েছেন। ১০০ দিনের কাজেও দুর্নীতি। তাতে সংসার চলে না। ফলে পরিবার প্রতিপালন করতে ভিনরাজ্যে যেতে বাধ্য হয়েছেন প্রবাসী শ্রমিকরা। এবার সেখানেও তাঁদের উপার্জন বন্ধ করতে চাইছে তৃণমূল।’

বিজেপির দাবি, তৃণমূলের বহিরাগত প্রচারের ফলে ভিনরাজ্যে কাজ হারাতে পারেন প্রবাসী শ্রমিকরা। সরকারি দলের এই ধরণের কাণ্ডজ্ঞানহীন প্রচারে হিংসার শিকার হতে পারেন তাঁরা। 

 

বন্ধ করুন