বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > বাংলায় ফের করোনা কাঁটা, বড় সিদ্ধান্ত নিল বামেরা
মহম্মদ সেলিম এবং দেবলীনা হেমব্রম। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
মহম্মদ সেলিম এবং দেবলীনা হেমব্রম। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

বাংলায় ফের করোনা কাঁটা, বড় সিদ্ধান্ত নিল বামেরা

  • করোনার ঢেউ ক্রমেই ফুলেফেঁপে উঠছে। তার জেরেই বাকি তিন দফার প্রচারের ক্ষেত্রে বড় জমায়েতে রাশ টানল বামফ্রন্ট। তবে কেমন হবে প্রচার? 

কোভিড সংক্রমণের সংখ্যা বাড়ছে ক্রমশ। কিন্ত কে শুনছে কার কথা? ভোট প্রচারে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের জমায়েতে সামাজিক দূরত্বের কোথাও কোনও বালাই নেই। বিভিন্ন জমায়েতে মঞ্চ থেকে দর্শক আসন, অধিকাংশের মুখেই মাস্ক দেখা যাচ্ছে না। সংক্রমণ  ছড়ানোর আশঙ্কাও বাড়ছে ক্রমশ। এসবের মধ্যেই বুধবার ভোট পরিস্থিতিতেও করোনা সংক্রমণ রুখতে বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে  বামফ্রন্ট। বাম নেতৃত্ব জানিয়েছেন, বাকি তিনদফা ভোটে বড় কোনও জমায়েত করা হবে না। মূলত নেটমাধ্যমে ও বিধি মেনে বাড়ি বাড়ি প্রচারে জোর দেওয়া হবে।

বুধবার কলকাতায় আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে সাংবাদিক বৈঠকে সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য  মহম্মদ সেলিম জানিয়েছেন,' আগামী দফার ভোট প্রচারে  বড় ভিড় না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। হইচই পাকানোর মতো কিছু করা হবে না।  মানুষকে সচেতন করার উপরেই জোর দেওয়া হবে। যেখানে ভোট হয়েছে অথবা যেখানে ভোট হবে সেখানে গত একবছর ধরে যে পরিষেবা আমরা দিয়েছি সেটাই দেওয়া হবে। আক্রান্ত মানুষের পাশে দাঁড়াব। বাস্তব পরিস্থিতি মেনে সকলকে সচেতন করার কাজ করা হবে। রেশন ও খাবার পৌঁছে দেওয়ার কাজ করা হবে'।

মহম্মদ সেলিম আরও জানিয়েছেন, ছোট পথসভার উপর জোর দেওয়া হবে। সামাজিক মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে, নেট মাধ্যমে প্রচার করা হবে। স্থানীয় কয়েকটি পরিবারকে নিয়ে ছোট ছোট করে বৈঠক করা হবে। তিনি আরও বলেন,আমাদের সরকার তো করোনা মোকাবিলা মানে একটা বিষয়ই জানে। সেটা হল লকডাউন।এখনও লকডাউনের প্রভাব যায়নি। কর্মহীন মানুষের জ্বালা, যন্ত্রণা এখনও তাজা রয়েছে।

বন্ধ করুন