বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > পিংলা (পশ্চিমবঙ্গ) বিধানসভার ভোটের ফলাফল: তৃণমূলের অজিত মাইতি

এই আসনে তৃণমূল প্রার্থী অজিত মাইতি ৪৯.১৭ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়ী। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির অন্তরা ভট্টাচার্য পেয়েছেন ৪৬.২৬ শতাংশ ভোট।

এই কেন্দ্রে এবারে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন অজিত মাইতি। বিজেপির তরফ থেকে দাঁড়াচ্ছেন অন্তরা ভট্টাচার্য। অন্যদিকে, বাম-কংগ্রেস-ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের (আইএসএফ) তরফে এই কেন্দ্রে দাঁড়াচ্ছেন সমীর রায়।

মেদিনীপুর বিভাগের একটি জেলা পশ্চিম মেদিনীপুর। ২০০২ সালের ১ জানুয়ারি অবিভক্ত মেদিনীপুর জেলাকে দু’ভাগে ভাগ করে এই জেলা স্থাপিত হয়। এই জেলায় তিনটি মহকুমা রয়েছে খড়্গপুর, মেদিনীপুর সদর ও ঘাটাল। পিংলা এই জেলার একটি বিধানসভা কেন্দ্র।

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রে জয়ী হয়েছিলেন তৃণমূল প্রার্থী সৌমেনকুমার মহাপাত্র৷ তাঁর প্রাপ্ত ভোট ১০৪,৪১৬৷ দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন ডিএসপি(‌পিসি)‌—র প্রার্থী প্রবোধচন্দ্র সিনহা৷ তাঁর প্রাপ্ত ভোট ৮০,১৯৮৷ তৃণমূল প্রার্থী সৌমেনকুমার মাহাপাত্র তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডিএসপি(‌পিসি)‌—র প্রার্থী প্রবোধচন্দ্র সিনহাকে ২৪,২১৮ ভোটে পরাজিত করেছিলেন।

২০০৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে ডিএসপি (পিসি)—র রামপদ সামন্ত পিংলা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন। তৃণমূল কংগ্রেসের ঋষিকেশ দিন্দাকে পরাজিত করেছিলেন তিনি। ২০০১ সালে নির্দলের রামপদ সামন্ত নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তৃণমূল কংগ্রেসের রাজকুমার দাসকে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৯৬ সালে রামপদ সামন্ত সিপিএমের প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে কংগ্রেসের স্বপন ডোমকে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৯১ সালে ডিএসপি (পিসি)‌—র প্রতিনিধিত্বকারী হরিপদ জানা কংগ্রেসের শক্তিপদ মহাপাত্রকে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৮২ ও ১৯৮৭ সালে নির্দলের হরিপদ জানা কংগ্রেসের সুকুমার দাস ও ১৯৭৭ সালে জনতা পার্টির প্রতিনিধিত্বে কংগ্রেসের বিজয় দাসকে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৫৭ ও ১৯৬২ সালে এই কেন্দ্রে কোনও আসন ছিল না।

বন্ধ করুন