বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‘তৃণমূলের হতাশার ফল’, বারুইপুরের পথে শুভেন্দু–রাজীবকে কালো পতাকা
শুভেন্দু–রাজীবকে কালো পতাকা, বারুইপুরে পালটা আক্রমণ দু’‌জনের। (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত এবং টুইটার)
শুভেন্দু–রাজীবকে কালো পতাকা, বারুইপুরে পালটা আক্রমণ দু’‌জনের। (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত এবং টুইটার)

‘তৃণমূলের হতাশার ফল’, বারুইপুরের পথে শুভেন্দু–রাজীবকে কালো পতাকা

  • বারুইপুরে যোগদান মেলায় যাওয়ার পথে শুভেন্দু অধিকারী এবং রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে কালো পতাকা দেখাল একদল মানুষ।

বারুইপুরে যোগদান মেলায় যাওয়ার পথে শুভেন্দু অধিকারী এবং রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে কালো পতাকা দেখাল একদল মানুষ। পদ্মপুকুর এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। তাঁদের কনভয় যাওয়ার সময় অনেকেই রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে শান্তিপূর্ণভাবেই কালো পতাকা দেখান। বারুইপুরের সভায় গিয়েছিলেন মুকুল রায়ও। তবে এসব নাকি তৃণমূল কংগ্রেসের কারসাজি বলে তাঁরা মনে করেন।

এই বিষয়ে রাজীব বলেন, ‘হতাশা থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের লোকজন আমাদের কালো পতাকা দেখাচ্ছে। ওরা শেষ হয়ে গিয়েছে। দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে। তাই কালো পতাকা দেখাচ্ছে।’ এই মন্তব্যের পাল্টা তৃণমূল কংগ্রেসের প্রবীণ সাংসদ সৌগত রায় বলেন, ‘এতদিন সরকারে যাঁরা দুধ–মধু খেয়ে দল ছেড়েছেন, তাঁদের প্রতি দলের নিচুতলার কর্মীদের ক্ষোভ থাকাটাই স্বাভাবিক। বিশ্বাসঘাতকদের সঙ্গে এমনই হয়।’

বারুইপুরের ওই সভার আয়োজন করা হয়েছিল বিজেপিতে যোগদানের জন্য। তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় অবশ্য মঙ্গলবার কটাক্ষ করেন, ‘যোগহীন মেলায় যোগদান করবে কে!’ রাজ্যে ‘পরিবর্তন’–এর সূচনা হয়েছিল পূর্ব মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা দিয়ে। ওই দু’টি জেলায় প্রথম জেলা পরিষদ দখল করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। তার পরে তারা গোটা রাজ্যে ক্ষমতা বিস্তার করে। বারুইপুরের সভায় সেই কথা মনে করিয়ে দিয়ে শুভেন্দু বলেন, ‘এটা নাকি তৃণমূল কংগ্রেসের দুর্গ! এই জেলা থেকেই বিজেপি সবচেয়ে ভালো ফল করবে।’‌

বন্ধ করুন