বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > সাতদিন আগেই যোগ বিজেপিতে, 'উপলব্ধি'-র কারণে তৃণমূলে ফিরলেন বিদায়ী কাউন্সিলর
বিধাননগরের পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর তথা প্রশাসক সাথী বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)
বিধাননগরের পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর তথা প্রশাসক সাথী বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)

সাতদিন আগেই যোগ বিজেপিতে, 'উপলব্ধি'-র কারণে তৃণমূলে ফিরলেন বিদায়ী কাউন্সিলর

  • ‌ভোটের মুখে বিধাননগরে ধাক্কা খেল বিজেপি।

‌ভোটের মুখে বিধাননগরে ধাক্কা খেল বিজেপি। তৃণমূল কংগ্রেসে সুজিত বসু আর বিজেপির সব্যসাচী দত্তের মুখোমুখি লড়াইয়ে সরগরম বিধাননগর। দু'পক্ষই জোরকদমে ভোটের প্রচার শুরু করে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি ছেড়ে পুরনো দল তৃণমূলে ফিরে এলেন বিধাননগরের পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর তথা প্রশাসক সাথী বন্দ্যোপাধ্যায়। মাত্র এক সপ্তাহ আগে তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু এক সপ্তাহ পর তাঁর উপলব্ধি, ‘‌বিজেপির মতো সাম্প্রদায়িক দলের সঙ্গে আমি মানিয়ে নিতে পারছি না।’

‌গত ১৪ মার্চ তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন বিধাননগরের ওই কাউন্সিলর। ২১ মার্চ ফের তৃণমূলেই ফিরে এলেন তিনি। তাঁর বিজেপিতে যাওয়ার বিষয়টিকে ‘‌তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত’‌ বলে উল্লেখ করে বিধাননগরের কাউন্সিলর বলেন, ‘‌এই সপ্তাহে বিজেপিতে গিয়ে আমার উপলব্ধি হয়েছে, আমি যে ঘরানায় বড় হয়েছি, তাতে আমার পক্ষে বিজেপির মতো সাম্প্রদায়িক দলের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়। বিজেপি ছাড়ার কথা আমি এসএমএস করে সব্যসাচীকে জানিয়েও দিয়েছি।’‌ একইসঙ্গে তিনি জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দেখেই তাঁর তৃণমূলে আসা। তিনি তৃণমূলই করতে চান। সেই সঙ্গে তিনি আরও জানান, তিনি তো ১০ বছর ধরে বিধাননগরের ওই এলাকার কাউন্সিলর ছিলেন। বলেন, ‘দেখে আসুন ওই এলাকায় কী কাজ করেছি। বিজেপি যোগ দিয়ে আমি কী বলব যে ওই এলাকায় কাজ করিনি?‌ তাহলে কি আমি বিজেপির হয়ে কাজ করেছি?‌’

বিধাননগরের তৃণমূল প্রার্থী সুজিত বসুর উপস্থিতিতে ফের তৃণমূলে যোগ দেন সাথী।এই যোগদান প্রসঙ্গে সুজিতবাবু বলেন, ‘সাথীকে দীর্ঘদিন ধরে চিনি। কেন উনি বিজেপিতে গিয়েছিলেন তা উনি নিজেই জানিয়েছেন। উনি মানিয়ে নিতে পারছিলেন না। উনি ১০ বছর ধরে ছিলেন। আমাদের সঙ্গেই কাজ করবে।’

বন্ধ করুন