বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > যারা পতাকা পোড়াচ্ছেন তারা কোনও রাজনৈতিক দলেরই কর্মী নন, দাবি শমীক ভট্টাচার্যর
শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠকে শমীক ভট্টাচার্য।
শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠকে শমীক ভট্টাচার্য।

যারা পতাকা পোড়াচ্ছেন তারা কোনও রাজনৈতিক দলেরই কর্মী নন, দাবি শমীক ভট্টাচার্যর

  • বিক্ষোভকারীদের সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘যারা পতাকা পোড়াচ্ছেন তারা বিজেপির কেউ নয়। ওরা আসলে কোনও রাজনৈতিক কর্মীই নন।

বিজেপির প্রার্থীতালিকা ঘোষণার পরই প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষের জেরে দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভে উত্তাল গোটা রাজ্য। বিভিন্ন জায়গায় দলীয় পার্টি অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে দলীয় কর্মীদের বিরুদ্ধেই। চলছে পথ অবরোধ, এমনকী দলীয় নেতাদের ছবিতে অগ্নিসংযোগ। যা নিয়ে বিবৃত বিজেপির শীর্ষনেতৃত্বও। তবে বিক্ষোভকারীদের রাজনৈতিক কর্মী বলেই মানতে নারাজ বিজেপির মুখপাত্র তথা রাজারহাট – গোপালপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শমীক ভট্টাচার্য। শুক্রবার দলীয় সাংবাদিক বৈঠকে সরাসরি বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে আক্রমণ শানান তিনি। 

এদিন শমীকবাবু বলেন, ‘একটা সংগঠিত দলে বিক্ষোভ হওয়া উচিত নয়৷ কিছুটা তো বিচ্যূতি হয়েছে৷ তবে দলের তরফে এবার প্রার্থীতালিকায় সমাজের সর্বস্তরের প্রতিনিধিত্ব রাখার পরিকল্পনা করা হয়েছিল৷ সেইভাবেই প্রার্থীতালিকা তৈরি করা হয়েছে’৷ তিনি আরও বলেন,  ‘দলের উচ্চ নেতৃত্বও বিষয়টি নিয়ে চিন্তাভাবনা করছে ৷ তিন দিনের মধ্যে সব সামলে সঙ্ঘবদ্ধ ভাবে নির্বাচনী প্রচারে নামবে ভারতীয় জনতা পার্টি’৷

বিক্ষোভকারীদের সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘যারা পতাকা পোড়াচ্ছেন তারা বিজেপির কেউ নয়। ওরা আসলে কোনও রাজনৈতিক কর্মীই নন। কোনও রাজনৈতিক কর্মী এভাবে কোনও দলেরই পতাকা পোড়ায় না।’

ওদিকে প্রার্থীতালিকা প্রকাশের পর শুক্রবারও জেলায় জেলায় বিজেপি কর্মীরা প্রার্থী বদলের দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। দেখার শমীকবাবুর কথা মতো দিন কয়েকের মধ্যে এই বিক্ষোভ থামে কি না। 

বিজেপির প্রার্থীতালিকা ঘোষণার পরই প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষের জেরে দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভে উত্তাল গোটা রাজ্য। বিভিন্ন জায়গায় দলীয় পার্টি অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে দলীয় কর্মীদের বিরুদ্ধেই। চলছে পথ অবরোধ, এমনকী দলীয় নেতাদের ছবিতে অগ্নিসংযোগ। যা নিয়ে বিবৃত বিজেপির শীর্ষনেতৃত্বও। তবে বিক্ষোভকারীদের রাজনৈতিক কর্মী বলেই মানতে নারাজ বিজেপির মুখপাত্র তথা রাজারহাট – গোপালপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শমীক ভট্টাচার্য। শুক্রবার দলীয় সাংবাদিক বৈঠকে সরাসরি বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে আক্রমণ শানান তিনি। 

এদিন শমীকবাবু বলেন, ‘একটা সংগঠিত দলে বিক্ষোভ হওয়া উচিত নয়৷ কিছুটা তো বিচ্যূতি হয়েছে৷ তবে দলের তরফে এবার প্রার্থীতালিকায় সমাজের সর্বস্তরের প্রতিনিধিত্ব রাখার পরিকল্পনা করা হয়েছিল৷ সেইভাবেই প্রার্থীতালিকা তৈরি করা হয়েছে’৷ তিনি আরও বলেন,  ‘দলের উচ্চ নেতৃত্বও বিষয়টি নিয়ে চিন্তাভাবনা করছে ৷ তিন দিনের মধ্যে সব সামলে সঙ্ঘবদ্ধ ভাবে নির্বাচনী প্রচারে নামবে ভারতীয় জনতা পার্টি’৷

বিক্ষোভকারীদের সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘যারা পতাকা পোড়াচ্ছেন তারা বিজেপির কেউ নয়। ওরা আসলে কোনও রাজনৈতিক কর্মীই নন। কোনও রাজনৈতিক কর্মী এভাবে কোনও দলেরই পতাকা পোড়ায় না।’

ওদিকে প্রার্থীতালিকা প্রকাশের পর শুক্রবারও জেলায় জেলায় বিজেপি কর্মীরা প্রার্থী বদলের দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। দেখার শমীকবাবুর কথা মতো দিন কয়েকের মধ্যে এই বিক্ষোভ থামে কি না। 

|#+|

 

 

বন্ধ করুন