বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৩১টা আসনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উপহার দিতে হবে:‌ আবদার অভিষেকের
তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৩১টা আসনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উপহার দিতে হবে:‌ আবদার অভিষেকের

  • ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ৩১টি জেলার মধ্যে ২৯টি আসনে জিতেছিল তৃণমূল। যে দুটি আসন তৃণমূল দখলে রাখতে পারেনি তা হল যাদবপুর ও কুলতলি।

দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৩১টা আসনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উপহার দিতে হবে— রবিবার কুলতলির সভায় জনগণের কাছে এমনই আবদার করলেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিষেকের কথায়, ‘এই জেলায় পরিবর্তনের প্রথম চাকা ঘুরেছিল। কুলতলিতে তৃণমূল প্রার্থীই জিতবেন। পঞ্চাশ হাজারের বেশি ভোটে জিতবেন।’

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ৩১টি জেলার মধ্যে ২৯টি আসনে জিতেছিল তৃণমূল। যে দুটি আসন তৃণমূল দখলে রাখতে পারেনি তা হল যাদবপুর ও কুলতলি। সিপিএমের পক্ষে যাদবপুরে সুজন চক্রবর্তী ও কুলতলিতে রামশঙ্কর হালদার জয়ী হন। যদিও গত লোকসভা ভোটে এই ৩১টি আসনেই এগিয়েছিলেন তৃণমূল প্রার্থীরা। যাদবপুরে তৃণমূল প্রার্থী অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী ৩১,৯৭৪ ভোটে এবং কুলতলিতে জয়নগরের সাংসদ প্রতিমা মণ্ডল ৮,৪১১ ভোটে এগিয়ে ছিলেন।

এবার এই জেলা থেকে ৩১টি আসনেই জয় নিশ্চিত করতে চাইছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন কুলতলির সভায় তিনি বলেন, ‘‌আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। এই জেলা থেকে ৩১টি আসনই তুলে দিতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে। ৩১–এ ৩১ করতেই হবে। যাতে একটি আসনও সিপিএম, বিজেপি কিংবা কংগ্রেসের হাতে না যায় সেটা খেয়াল রাখতে হবে।’‌

বন্ধ করুন