বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > বাতিল হচ্ছে না তৃণমূলের উজ্জ্বল কুমারের মনোনয়ন, লাইফলাইন দিল হাইকোর্ট
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

বাতিল হচ্ছে না তৃণমূলের উজ্জ্বল কুমারের মনোনয়ন, লাইফলাইন দিল হাইকোর্ট

  • আর তারপরই পুরুলিয়ার জয়পুর বিধানসভা আসনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী উজ্জ্বল কুমারের মনোনয়ন বাতিল নিয়ে জট কেটে গেল।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে বেশ খানিকটা স্বস্তিতে ফিরল তৃণমূল কংগ্রেস। কারণ হলফনামায় ত্রুটি থাকায় পুরুলিয়ার জয়পুর কেন্দ্রের প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করে দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। সেই সিদ্ধান্তকেও এবার বাতিল করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। আর তারপরই পুরুলিয়ার জয়পুর বিধানসভা আসনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী উজ্জ্বল কুমারের মনোনয়ন বাতিল নিয়ে জট কেটে গেল। নির্বাচন কমিশনকে উজ্জ্বলের ওই মনোনয়ন গ্রহণ করার নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

একদিন আগে জয়পুরের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী উজ্জ্বল কুমারের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে বলে নিজেদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। বুধবার বেলা ১১টা নাগাদ মনোনয়নপত্র পরীক্ষা শেষ হওয়ায় ত্রুটি সংশোধন করে নতুন করে হলফনামা জমা দিতে বলা হয় তাঁকে। তখন সেই হলফনামায় তারিখ হিসাবে উল্লেখ রয়েছে ৮ মার্চ। কিন্তু ৯ মার্চ পাঠানো চিঠির জবাব কী করে ৮ মার্চ তৈরি হতে পারে!‌ এই প্রশ্ন তুলে তাঁর মনোনয়ন বাতিল করে দেয় নির্বাচন কমিশন।

এদিকে কমিশনের ওয়েবসাইটে উজ্জ্বল কুমারের প্রার্থীপদ বাতিলের খবর দেখার পরই চাঞ্চল্য ছড়ায় জেলা তৃণমূল কংগ্রেসে। মামলা গড়ায় কলকাতা হাইকোর্টে। কমিশনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন জানান তৃণমূল নেতৃত্ব। বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য নির্বাচন কমিশনের ওই সিদ্ধান্ত বাতিল করে পুরনো মনোনয়ন গ্রহণ করার নির্দেশ দেন। আর নির্দেশে বিচারপতি জানান, উজ্জ্বল কুমারের মনোনয়নে যে ত্রুটির কথা উল্লেখ করা হয়েছে তা সামান্য ব্যাপার। আর নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে আদালতে কেউ আবেদন করেননি।

অন্যদিকে উজ্জ্বলবাবুর মনোনয়ন বাতিল হয়ে যাওয়ায় চরম অস্বস্তিতে পড়েছিলেন স্থানীয় তৃণমূল নেতারা। আপাতত স্বস্তি ফিরল। ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে নিজেদের মধ্যে কথা হয়ে গিয়েছে। এই রায়ের কপি হাতে পেয়েছেন উজ্জ্বল কুমার। তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য দফতরেও তার প্রতিলিপি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর। সুতরাং নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে যে উল্লাস দেখা গিয়েছিল জেলা বিজেপির তরফে তা থেমে গেল।

বন্ধ করুন