বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‘‌অস্ত্র হাতে ঘুরছে বিজেপি কর্মীরা’‌, ভিডিও টুইট করে কমিশনকে আক্রমণ শশী পাঁজার
শশী পাঁজা। (ফাইল ছবি, ফেসবুক)
শশী পাঁজা। (ফাইল ছবি, ফেসবুক)

‘‌অস্ত্র হাতে ঘুরছে বিজেপি কর্মীরা’‌, ভিডিও টুইট করে কমিশনকে আক্রমণ শশী পাঁজার

  • এই পরিস্থিতিতে চাঞ্চল্যকর টুইট করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মন্ত্রী তথা নেত্রী শশী পাঁজা।

প্রথম দফার বিধানসভা নির্বাচন শুরু হতেই কাঁথিতে সৌমেন্দু অধিকারীর গাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠল। তারপর ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগে মেদিনীপুর চার্চ স্কুলের একটি বুথে উত্তেজনার সৃষ্টি হল। এমনকী পটাশপুরে বোমা–গুলির লড়াইয়ে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে আড়গোয়াল গ্রাম। তৃণমূল কংগ্রেস–বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটল পুরুলিয়ার ছাতনায়। এই পরিস্থিতিতে চাঞ্চল্যকর টুইট করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মন্ত্রী তথা নেত্রী শশী পাঁজা। শনিবার ভিডিও টুইট করে তিনি আঙুল তুলেছেন নির্বাচন কমিশনের দিকে। তবে ওই ভিডিওটি কোথাকার তা উল্লেখ করেননি তিনি।

কী দেখা যাচ্ছে ওই টুইট করা ভিডিও–তে?‌ দেখা যাচ্ছে, দু’‌জন ব্যক্তি অস্ত্র হাতে পায়চারি করছে। শশী পাঁজার দাবি, ‘‌বুথ থেকে একশো মিটারের মধ্যে অস্ত্র হাতে ঘুরছে বিজেপি কর্মীরা। কমিশন কী করছে? যে কেন্দ্রীয় বাহিনী ভোটদাতাদের নিরাপত্তা দিচ্ছে বলে দাবি করা হচ্ছে তারা কোথায়?’‌ এই ভিডিও টুইট করার পর তা ভাইরাল হয়ে পড়েছে। প্রথম দফার ভোট চলাকালীন এই টুইট রাজ্য–রাজনীতিতে ঝড় তুলে দিয়েছে। চাপে পড়ে গিয়েছে স্বয়ং নির্বাচন কমিশন।

কী দেখা যাচ্ছে ওই টুইট করা ভিডিও–তে?‌ দেখা যাচ্ছে, দু’‌জন ব্যক্তি অস্ত্র হাতে পায়চারি করছে। শশী পাঁজার দাবি, ‘‌বুথ থেকে একশো মিটারের মধ্যে অস্ত্র হাতে ঘুরছে বিজেপি কর্মীরা। কমিশন কী করছে? যে কেন্দ্রীয় বাহিনী ভোটদাতাদের নিরাপত্তা দিচ্ছে বলে দাবি করা হচ্ছে তারা কোথায়?’‌ এই ভিডিও টুইট করার পর তা ভাইরাল হয়ে পড়েছে। প্রথম দফার ভোট চলাকালীন এই টুইট রাজ্য–রাজনীতিতে ঝড় তুলে দিয়েছে। চাপে পড়ে গিয়েছে স্বয়ং নির্বাচন কমিশন।|#+|

এই পরিস্থিতিতে বুথকর্মী নিয়োগ বদলের দাবিতে নির্বাচন কমিশনে গেলেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সঙ্গে গিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের ৯ সাংসদ। সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌বুথ কর্মীদের বিষয়ে কিছু অভিযোগ নিয়ে কমিশনে এসেছিলাম। আগে একজন বুথ কর্মীকে ওই বুথের ভোটার হতে হতো। এখন ওই নিয়ম বদলের দাবি করে নির্বাচন কমিশনে আবেদন করেছে। তাদের দাবি, যে কেউ যাতে বুথের এজেন্ট হতে পারে তার ব্যবস্থা করা হোক। এটা মেনে নেওয়া য়ায় না। আমরা চাই দ্বিতীয় দফা থেকে এমন ব্যবস্থা নিক সরকার।’‌

বন্ধ করুন