বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ভোট এলেই চা বাগান খুলবে বলে আর ভোটের পর পালিয়ে যায়:‌ বিজেপি–কে কটাক্ষ মমতার
আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটার অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার। ছবি সৌজন্য :‌ পিটিআই (PTI)
আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটার অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার। ছবি সৌজন্য :‌ পিটিআই (PTI)

ভোট এলেই চা বাগান খুলবে বলে আর ভোটের পর পালিয়ে যায়:‌ বিজেপি–কে কটাক্ষ মমতার

  • জনগণের প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, ‘‌বিজেপি–র এতগুলি এমপি জিতেছে, কোনও কাজ করেছে? এতগুলি চা বাগান বন্ধ, কিছু করেছে? বিজেপি কুৎসা, অপপ্রচার ছাড়া কিছু করেছে কি?’‌

উত্তরবঙ্গ সফরের দ্বিতীয় দিনে ফালাকাটায় এক সামাজিক অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে চা বাগান ইস্যুতে কেন্দ্র তথা বিজেপি সরকারকে একহাতে নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কটাক্ষ, ‘‌ওরা ভোটের সময় বলে চা বাগান খুলবে, ভোটের পর পালিয়ে যায়।’‌ পাশাপাশি এদিন ফালাকাটার ওই অনুষ্ঠান থেকে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুবিধা সাধারণ মানুষের হাতে তুলে দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন ‘‌চা সুন্দরী’‌ প্রকল্পে উত্তরবঙ্গের ১২টি চা বাগানের ৪৬০০ জন শ্রমিকের হাতে বাড়ি বণ্টন সংক্রান্ত নথি তুলে দিয়ে মমতা বলেন, ‘‌আজ চা বাগানের শ্রমিকদের পাট্টা দেওয়া হল। শ্রমিকরা পাকাপাকিভাবে জমির পাট্টা পেলেন। বাজেটে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল, এক বছর পার হওয়ার আগেই সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করল সরকার।’‌

এর পরই বিজেপি–কে কটাক্ষ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য, ‘‌বিজেপি শুধু প্রতিশ্রুতি দেয়, কোনও কাজ করে না। শুধু কুৎসা আর অপপ্রচার করে বেড়ায়। ভোটের সময় বলে চা বাগান খুলবে, ভোটের পর পালিয়ে যায়। আগের বার ভোটের আগে বলেছিল ৭টা চা বাগান খুলবে, আজ পর্যন্ত একটাও খুলেছে? আমরাই ৯টা চা বাগান খুলে দিয়েছি।’‌

গত লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গের ৮টি আসনের মধ্যে ৭টিই তৃণমূলের হাতছাড়া হয়। সেগুলি দখল করে বিজেপি। এবং মালদা দক্ষিণ আসনে জেতে কংগ্রেস। এদিন সভায় উপস্থিত জনগণের প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, ‘‌বিজেপি–র এতগুলি এমপি জিতেছে, কোনও কাজ করেছে? এতগুলি চা বাগান বন্ধ, কিছু করেছে? বিজেপি কুৎসা, অপপ্রচার ছাড়া কিছু করেছে কি?’‌

এদিন আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটায় আদিবাসীদের গণবিবাহ অনুষ্ঠানে যোগ দেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, ‘‌আদিবাসীরা আমাদের গর্ব, আমাদের অহংকার।’‌ একইসঙ্গে তিনি ঘোষণা করেন, ‘‌আগামীদিনেও বিনা পয়সায় সবাই রেশন ও স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড পাবেন। রেশন কার্ডের মতোই স্বাস্থ্যসাথীরও ডিজিটাল কার্ড দেওয়া হবে।’

বন্ধ করুন