বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > পঞ্চম দফায় ২০ শতাংশের বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধিক মামলা, ২০ শতাংশ কোটিপতি
Nadia: People stand in a queue to cast their vote at a polling station during the 5th phase of State Assembly elections at Santipur, in Nadia, Saturday, April 17, 2021. (PTI Photo)(PTI04_17_2021_000012B) (PTI)
Nadia: People stand in a queue to cast their vote at a polling station during the 5th phase of State Assembly elections at Santipur, in Nadia, Saturday, April 17, 2021. (PTI Photo)(PTI04_17_2021_000012B) (PTI)

পঞ্চম দফায় ২০ শতাংশের বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধিক মামলা, ২০ শতাংশ কোটিপতি

  • মোট ৩১৯ জন প্রার্থীদের মধ্যে ৭৯ জন অর্থাৎ ২৫ শতাংশের বিরুদ্ধে অপরাধিক মামলা রয়েছে। তার মধ্যে ৬৪ জন অর্থাৎ ২০ শতাংশের বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধের মামলা দায়ের রয়েছে। এছাড়াও ৬৫ জন অর্থাৎ ২০ শতাংশ কোটিপতি প্রার্থীরাও রয়েছেন যাদের মধ্যে অনেকেরই ন্যূনতম সম্পত্তির পরিমাণ ৮১.৭৬ লক্ষ টাকা

শুরু হয়ে গিয়েছে পঞ্চম দফার ভোট। শনিবার সকাল থেকেই রাজ্যের ৬টি জেলার ৪৫টি বিধানসভা কেন্দ্রের বুথগুলিতে ভোটাররা আসতে শুরু করেছেন।

পঞ্চম দফার নির্বাচনে বেশ কয়েকটি চমকপ্রদ তথ্য রয়েছে। কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, এবারে যেরকম কোটিপতি প্রার্থীরা ভোটে দাঁড়িয়েছেন, তেমনই এমনও প্রার্থী রয়েছেন যাদের উপর অপরাধিক মামলা চলছে।

এবারে নির্বাচন কমিশনে মনোনয়ন পেশ করে বেশ কয়েকজন প্রার্থী নিজেদের কোটিপতি দাবি করেছেন। তাঁদের মধ্যে উল্ল্যেখযোগ্য হল, শান্তিপুরের কংগ্রেস প্রার্থী ঋজু ঘোষাল। তিনি নিজের হলফনামা পেশ করে জানিয়েছেন, তাঁর স্থাবর—অস্থাবর সম্পত্তির মোট পরিমাণ ১৯.৪৭ কোটি টাকা। অন্য দিকে, কালিম্পংয়ের ইন্ডিপেন্ডেন্ট প্রার্থী রূদেন সাদা লেপচা নিজের হলফনামায় জানিয়েছেন, তাঁর স্থাবর—অস্থাবর সম্পত্তির মোট পরিমাণ ১৮.৩০ কোটি টাকা। তৃতীয় হচ্ছেন দেগঙ্গা ফরওয়ার্ড ব্লক প্রার্থী মোহাম্মদ হাসানুর জামান চৌধুরী। তিনি তাঁর হলফনামায় জানিয়েছেন, তাঁর স্থাবর—অস্থাবর সম্পত্তির মোট পরিমাণ ১০.২৭ কোটি টাকা।

সূত্রের খবর, এবারে মোট ৩১৯ জন প্রার্থীদের মধ্যে ৭৯ জন অর্থাৎ ২৫ শতাংশের বিরুদ্ধে অপরাধিক মামলা রয়েছে। তার মধ্যে ৬৪ জন অর্থাৎ ২০ শতাংশের বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধের মামলা দায়ের রয়েছে। এছাড়াও ৬৫ জন অর্থাৎ ২০ শতাংশ কোটিপতি প্রার্থীরাও রয়েছেন যাদের মধ্যে অনেকেরই ন্যূনতম সম্পত্তির পরিমাণ ৮১.৭৬ লক্ষ টাকা।

 

এছাড়াও পঞ্চম দফার নির্বাচনে উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের এমন বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ জেলা রয়েছে, যেখানে প্রত্যেক রাজনৈতিক দলের তীক্ষ্ণ নজর রয়েছে। বিশেষ করে পাহাড়ের দিকে তাকিয়ে আছে সব ক'টি রাজনৈতিক দল। পাহাড়ের মসনদে কে বসবে, তার ভাগ্য নির্ধারণ হবে। পাহাড়ের তিনটি আসনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখতে চলেছে বাংলা। মোট ৬টি জেলার নির্বাচন ঘিরে কোমর বেঁধে নেমেছে সব ক’‌টি রাজনৈতিক দল। এর মধ্যে থেকে বেশ কয়েকটি জেলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যার মধ্যে হল, উত্তরবঙ্গের নক্সালবাড়ি, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং ও দার্জিলিং। এছাড়াও ভোট রয়েছে, পূর্ব বর্ধমানের কিছু অংশ, উত্তর ২৪ পরগনা ও নদীয়ায়।

পাহাড়ে গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে বহু বছর ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন নেপালি ভাষী গোর্খারা। এই নির্বাচনে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার নেতা বিনয় তামাং হাত মিলিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে। এছাড়াও আরেকটি কেন্দ্রের দিকে সবার নজর রয়েছে, সেটি হল নক্সালবাড়ি। কারণ, নকশাল ও মাওবাদীদের গড় বলে পরিচিত এই এলাকা বরাবরই অশান্ত। কে এই আসনে জিতবেন, তা নিয়েও কৌতুহল রয়েছে মানুষের মধ্যে। সেজন্য নির্বাচনে এই কেন্দ্রও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, সকাল ১১টা ৫৭ মিনিট পর্যন্ত আপাতত দার্জিলিংয়ে ৩৩.‌৫১ শতাংশ, জলপাইগুড়িতে ৩৯.‌২৭ শতাংশ, কালিম্পংয়ে ৩৪.‌৬৯ শতাংশ, নদিয়ায় ৩৭.‌৪০ শতাংশ, উত্তর ২৪ পরগনায় ৩৩.‌৩৪ শতাংশ ও পূর্ব বর্ধমানে ৩৮.‌৬২ শতাংশ ভোট পড়েছে।

বন্ধ করুন