বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > 'একটা ছেলে কিছু সমস্যা হলেও ছেড়ে কথা নয়, কমিশন বুঝে নেব আমি', হুংকার আব্বাসের
আব্বাস সিদ্দিকি। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
আব্বাস সিদ্দিকি। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

'একটা ছেলে কিছু সমস্যা হলেও ছেড়ে কথা নয়, কমিশন বুঝে নেব আমি', হুংকার আব্বাসের

‘ভাঙড়ে একটা ছেলের কিছু সমস্যা হলে রাস্তা অবরোধ করবে, কাউকে ছেড়ে কথা বলবে না।’

‘ভাঙড়ে একটা ছেলের কিছু সমস্যা হলে রাস্তা অবরোধ করবে, কাউকে ছেড়ে কথা বলবে না।’ রবিবার ভাঙড়ে দাঁড়িয়ে দলীয় কর্মীদের এমনই বার্তা দিয়ে গেলেন ‘‌ভাইজান’‌ আব্বাস সিদ্দিকি।একইসঙ্গে নাম না করে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা আরাবুল ইসলামকেও কাছে টানার বার্তা দিলেন আব্বাস।

রবিবার ভাঙড়ের বিজয়গঞ্জ বাজারে সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী পীরজাদা নৌসাদ সিদ্দিকির নির্বাচনী সভায় বক্তব্য রাখেন আব্বাস।সেখানেই একযোগে তৃণমূল ও বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণ শানান তিনি। তখনই প্রকাশ্য সভা থেকে দলীয় নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘‌পশ্চিমবঙ্গের মানুষের জন্য লড়াই করতে নেমেছি। এই লড়াই বড় পুণ্যের কাজ। ভাইজানের হাত ছাড়বেন না তো? ঠিক বলছেন তো?‌‌ সবাই আস্তে আস্তে বাড়ি ফিরে যান।’‌ এরপরই দলের এক সহকর্মী সফিকুলকে উদ্দেশে করে ভাইজান বলেন, ‘‌একটা ছেলের যদি কোনও সমস্যা হয়, তাহলে ছেড়ে কথা বলবে না। সকলকে নিয়ে রাস্তা অবরোধ করবে। দরকার হলে থানা ঘেরাও করবে। বাকিটা আমি নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বুঝে নেব।’

‌সেই সঙ্গে ভাঙড় থানার আইসি ও অনান্য আধিকারিকদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘আমাদের ছেলেদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে ভয় দেখাবেন না। গায়ে হাত দেবেন না। এরপর যদি এমন শুনি তাহলে ভাঙড় থানা অবরুদ্ধ করে দেব।’ 

নাম না করে রবিবার আরাবুল ইসলামের পাশে দাঁড়ান আব্বাস সিদ্দিকি। তিনি বলেন, ‘‌যে ছেলেটি তৃণমূলের হয়ে এতদিন কাজ করল, ২০০৬ সালে এখান থেকে দলকে জিতিয়েছে তাঁকে ধোঁকা দিয়েছে। আর আপনাদেরকে ধোঁকা দেবে না, সেটা হতে পারে না। তাই সকলকে বলব ২০২১ শে নৌসাদকে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করুন।’

‌উল্লেখ্য, তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পর প্রার্থীদের মধ্যে আরাবুলের নাম না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন আরাবুল ও তাঁর অনুগামীরা। যদিও পরে আরাবুল নিজেই জানিয়েছিলেন, তিনি তৃণমূলের সঙ্গেই আছেন এবং থাকবেন।

বন্ধ করুন