বাড়ি > বায়োস্কোপ > তু চিজ বরি হ্যায় মস্ত মস্ত-এর তালে সুশান্তের সঙ্গে পা মিলিয়েছিলেন দিদি শ্বেতা
ইনস্টাগ্রাম পেজে বছর ছয়েক পুরোনো একটি পারিবারিক বিবাহ অনুষ্ঠানের গেটটুগেদারের তিনটি ছবি পোস্ট করেন সুশান্ত ভগিনী ।
ইনস্টাগ্রাম পেজে বছর ছয়েক পুরোনো একটি পারিবারিক বিবাহ অনুষ্ঠানের গেটটুগেদারের তিনটি ছবি পোস্ট করেন সুশান্ত ভগিনী ।

তু চিজ বরি হ্যায় মস্ত মস্ত-এর তালে সুশান্তের সঙ্গে পা মিলিয়েছিলেন দিদি শ্বেতা

  • নিজের ইনস্টাগ্রাম পেজে বছর ছয়েক পুরোনো একটি পারিবারিক বিবাহ অনুষ্ঠানের গেটটুগেদারের তিনটি ছবি পোস্ট করেন সুশান্ত ভগিনী।

অভিনেতা সুশান্ত সিংয়ের মৃত্যু নিয়ে রহস্যের জট পাকানো এখনও অব্যাহত । আর এই আবহেই নিজেদের আলবাম থেকে সুশান্তের সঙ্গে হুল্লোড়ে মেতে একসঙ্গে গানের ছন্দে কোমর দোলানোর পুরনো ছবি পোস্ট করলেন দিদি শ্বেতা । নিজের ইনস্টাগ্রাম পেজে বছর ছয়েক পুরোনো একটি পারিবারিক বিবাহ অনুষ্ঠানের গেটটুগেদারের তিনটি ছবি পোস্ট করেন সুশান্ত ভগিনী ।

শ্বেতার পোস্ট থেকে জানা গিয়েছে তিনি এবং সুশান্ত ২০১৪ সালের মে মাসে ওই পারিবারিক বিবাহ অনুষ্ঠানে একসাথে তু চিজ বরি হ্যায় মস্ত মস্ত গানের তালে কোমর দুলিয়েছিলেন । আজ তাঁর ছোট্ট ভাইকে যে তিনি খুব মিস করছেন , ' #মিস ইউ ভাই ' লিখে নিজের পোস্টে তা পরিষ্কার বুঝিয়ে দেন শ্বেতা । ছবিতে সুশান্তকে কালো হাফ স্লিভ শার্ট , জিন্স , বেস বল টুপি পরে হুল্লোড়ে মেতে থাকতে দেখা গিয়েছে । অপর দিকে বেগুনি এবং কমলা লেহেঙ্গায় ভাইকে নাচের তালে যোগ্য সঙ্গত দিয়েছেন শ্বেতা । অপর ছবিটিতে পরিবারের একাধিক সদস্যের সাথে একটি গ্রূপ ফটোতে দেখা গিয়েছে প্রয়াত অভিনেতাকে ।

১৪ই জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাটে প্রয়াত অভিনেতার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা হয় । তারপর থেকেই আপাতত যাবতীয় সন্দেহের তির এই মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর দিকে । বর্তমানে প্রায় প্রত্যেকদিনই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার ম্যারাথন জেরার মুখোমুখি হচ্ছেন রিয়া । তবে সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে রিয়া দাবি করেছেন সুশান্তের সাথে পরিবারের সম্পর্ক মোটেই ভালো ছিলোনা । কিন্তু এই দাবিকেও নস্যাৎ করে দিয়েছেন শ্বেতা এবং তাঁর স্বামী বিশাল ।

নিজেদের পুরোনো ফ্লাইটের টিকিটের ছবি দেখিয়ে আমেরিকা নিবাসী শ্বেতা দাবি করেন পরিবারের সাথে সম্পর্ক না ভালো থাকলে তাঁরা কখনোই ভাইয়ের অসুস্থতার খবর পেয়ে আমেরিকা থেকে ছুটে আসতেন না । অসুস্থ সুশান্ত তাঁর চন্ডীগড় নিবাসী অপর দিদি মিতুর কাছে যেতে চেয়েছেন খবর পেয়েই স্বামীকে নিয়ে নিজের সন্তানকে একা রেখে এবং নিজের বিজনেসের গুরুত্বপূর্ণ কাজ ফেলে ভারতে ছুটে এসেছিলেন বলে দাবি করেন শ্বেতা ।

অপরদিকে বিশাল জানিয়েছেন সুশান্ত তাঁর দিদি মিতুর কাছে যাওয়ার টিকিট কেটে ফেললেও তাঁকে শেষ পর্যন্ত আর যেতে দেওয়া হয়নি । তাঁর অভিযোগ সুশান্তের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে তাঁকে ভুল বোঝানো হয় এবং শেষ পর্যন্ত বাধ্য হয়ে টিকিট ক্যানসেল করেন অভিনেতা। 

বন্ধ করুন