বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Virat-Anushka: 'মা পাগলের মতো লাফাচ্ছে কেন ভামিকা বুঝতে পারছে না', কলকাতায় বসে বিরাট-জয় নিয়ে লিখলেন অনুষ্কা

Virat-Anushka: 'মা পাগলের মতো লাফাচ্ছে কেন ভামিকা বুঝতে পারছে না', কলকাতায় বসে বিরাট-জয় নিয়ে লিখলেন অনুষ্কা

স্বামীর উদ্দেশে বার্তা অনুষ্কার

Anushka Sharma on Virat Kohli: ‘চাকদা এক্সপ্রেস’-এর শ্যুটিং বিকাল ৪-টেয় শেষ করে কলকাতায় বসে বিরাটের ম্যাচ দেখলেন অনুষ্কা। স্বামীর দুর্ধর্ষ ইনিংস দেখে কী লিখলেন গর্বিত নায়িকা? 

মেলবোর্ন স্টেডিয়ামে টানটান উত্তেজনা। ২০তম ওভারের শেষ বলটা রবিচন্দ্রন অশ্বিন লং অফের উপর দিয়ে মারতেই হাঁটু মুড়ে বসে পড়লেন বিরাট কোহলি। এরপর উইকেটের মধ্যে মারলেন একটা পাঞ্চ। খুলে ফেললেন হেলমেট। ইতিমধ্যেই সাজঘর থেকে ছুটে এসে তাঁকে জড়িয়ে ধরেছেন সূর্যকুমার যাদব! চিরপ্রতিন্দ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হারতে বসা ম্যাচটা কার্যত একার কৃতিত্বে জেতালেন বিরাট কোহলি। আর মেলবোর্ন থেকে ৮,৯৩৮ কিলোমিটার দূরে কলকাতায় বসে তখন আনন্দে লাফাচ্ছেন অনুষ্কা শর্মা।

ঝুলন গোস্বামীর বায়োপিকের শ্যুটিং-এ আপতত কলকাতায় রয়েছেন বিরাট ঘরণী। শ্যুটিং-এর ব্যস্ততার মাঝে আদেও বিরাটের এই ঐতিহাসিক ইনিংস দেখবার সুযোগ পেলেন অনুষ্কা? জবাব দিলেন বিরাট ঘরণী নিজেই।

রবিবার সকালে ময়দানে 'চাকদা এক্সপ্রেস'-এর শ্যুটিং করেছেন অনুষ্কা। এরপর চট জলদি পাঁচতারা হোটেলের রুমে ফেরেন। স্বামীর খেলায় চোখ রাখতে যাবতীয় তাড়াহুড়ো। টিভির পর্দাতেই চোখ রেখেছিলেন অনুষ্কা। তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগ করেছেন বিরাটের দুর্দান্ত ইনিংস। সঙ্গী ছিল একরত্তি অনুষ্কা। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ দেখতে গিয়ে অনুষ্কা তো হোটেলরুমে লাফালাফি শুরু করে দিয়েছেন, আর মায়ের কাণ্ড দেখে হাঁ ভামিকা।

ম্যাচ শেষে কোহলির উদ্দেশে কলম ধরলেন অনুষ্কা। ইনস্টাগ্রামে তিনি লেখেন, ‘তুমি সুন্দর! সত্যিই তুমি ভীষণ সুন্দর! আজ গোটা দেশের মুখে হাসি ফুটিয়েছো। দিওয়ালির ঠিক আগের সন্ধ্যায় গোটা দেশ হাসছে শুধুমাত্র তোমার জন্য। তুমি সত্যিই দুর্দান্ত। আমার প্রিয়তম, তুমি একজন অসাধারণ পুরুষ। তোমার জেদ, নিষ্ঠা এবং বিশ্বাস অভাবনীয়! আমি নিজের সেরা ম্যাচ দেখলাম আজ।’

এরপর অনুষ্কার সংযোজন-'আমাদের মেয়ে খুব ছোট এটা বোঝবার জন্য কেন পাগলের মতো ওর মা চিৎকার করছে আর নেচে বেড়াচ্ছে। তবে একদিন ও ঠিক বুঝবে যে ওর ড্যাড ওই রাতে জীবনের সেরা ইনিংসটা খেলেছিল, সেটাও জীবনের এমনটা একটা অধ্যায়ের পর যা ওর বাবার জন্য খুব কঠিন ছিল। কিন্তু সেই মুশকিলগুলো আরও শক্তিশালী এবং অভিজ্ঞ করে তুলেছে তাঁকে!

তোমাকে নিয়ে গর্বিত!! তোমার ক্ষমতাগুলো খুব ছোঁয়াছে আর হ্যাঁ, আমার প্রিয়, তুমি সীমাহীন!! তোমাকে আজীবন ভালোবাসব, ভালো-খারাপ সময় ব্যতিরেকে'।

শেষ বল পর্যন্ত টানটান উত্তেজনা। ১৬০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নামা টিম ইন্ডিয়ার শেষ ওভারে ভারতের জয়ের জন্য দরকার ছিল ১৬ রান। ২০তম ওভারে নওয়াজের প্রথম বলেই আউট হার্দিক পান্ডিয়া! কিন্তু অপর প্রান্তে থাকা বিরাট নিশ্চিত করেন ভারতের জয়। এদিন ৫৩ বলে ৮২ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলে ‘ম্যান অফ দ্য ম্যাচ’ বিরাট কোহলি।

বন্ধ করুন