বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘তুমি পালিয়ে বাঁচতে পারো না’,ডিভোর্সের জল্পনা উস্কে বার্তা ইমরান খানের 'স্ত্রী'র
ইমরান খান ও অবন্তিকা (ফাইল ছবি)
ইমরান খান ও অবন্তিকা (ফাইল ছবি)

‘তুমি পালিয়ে বাঁচতে পারো না’,ডিভোর্সের জল্পনা উস্কে বার্তা ইমরান খানের 'স্ত্রী'র

  • বলিউড কেরিয়ারকে আগেই বিদায় জানিয়েছেন, টালমাটাল ইমরান খানের ব্যক্তিগত জীবনও। 

বিয়ে ভাঙছে প্রাক্তন অভিনেতা ইমরান খানের বছরখানেক ধরেই বলিউডে এই গুঞ্জন শোনা যায়।  স্ত্রী অবন্তিকার সঙ্গে ‘কাট্টি বাট্টি’ অভিনেতার সম্পর্ক একদম তলানিতে ঠেকেছে গত কয়েক বছরে। আলাদাই থাকেন ইমরান-অবন্তিকা, এর মাঝেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ইঙ্গিতবাহী পোস্ট শেয়ার করলেন অবন্তিকা। ভাঙা সম্পর্কের কথা উঠে এল সেই পোস্টে। 

নিজের জীবনের সমস্যার কথা বোঝাতে এদিন জুনোট ডিয়াজের একটি পঙক্তির আশ্রয় নেন অবন্তিকা। তিনি ইংরাজিতে যে উদ্ধৃতি শেয়ার করেছেন তার বাংলা তর্জমা করলে খানিকটা দাঁড়ায়- ‘ কিন্তু এই বছরগুলো যদি আমাকে কিছু শিখিয়ে থাকে তা হল- তুমি কোনওদিন পালিয়ে বাঁচতে পারবে না… কোনওদিন নয়। পালিয়ে যাওয়ার একমাত্র রাস্তা হল (সমস্যার) ভিতরে ঢোকা’। ২০১৯ সালের সবার প্রথম প্রকাশ্যে এসেছিল অবন্তিকা-ইমরানের বিচ্ছেদের খবর,কিন্তু এই বিষয় নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি কেউই। 

গত বছরের শেষেও ডিভোর্স নিয়ে একটি ইঙ্গিতপূর্ণ পোস্ট লিখেছিলেন অবন্তিকা। তিনি লিখেছিলেন- ‘বিয়ে খুব কঠিন, তবে ডিভোর্সও কঠিন। এর মধ্যে থেকে তোমার পছন্দের শক্তটা বেছে নাও।স্থূলত্ব কঠিন, তবে ফিট থাকাও সহজ নয়। নিজের পক্ষে সহজটা বেছে নাও। ঋণগ্রস্ত থাকা খুব কঠিন, তবে অর্থনৈতিকভাবে স্বচ্ছল হওয়াটাও চ্যালেঞ্জিং। তোমার পছন্দের শক্তটা বেছে নাও। জীবন কখনই সহজ হবে না, তবে তোমাকে ভাবনা-চিন্তা করে সঠিক সিদ্ধান্তটা নিতে হবে’।

২০১৯ সালের জুন মাসে এক অনুষ্ঠানে ইমরানকে ডিভোর্স সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করা হলে প্রাক্তন অভিনেতার জবাব ছিল- ‘এই ধরণের অনুষ্ঠানে কীভাবে আপনি এইরকম একটা প্রশ্ন করতে পারেন?’ ২০১১ সালে আমির খানের ভাগ্না ইমরানের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল অবন্তিকার। তাঁদের একমাত্র সন্তান ইমারা। সদ্যই দ্বিতীয় বিয়ে ভেঙেছে আমির খানের। এর মধ্যেই বিচ্ছেদ নিয়ে অবন্তিকার এই পোস্ট ইমরান-অবন্তিকার ডিভোর্সের জল্পনা উস্কে দিল। 

পিঙ্কভিলা সূত্রে খবর, বলিউডের ব্যর্থ কেরিয়ার ইমরানের দাম্পত্য জীবনকেও ব্যাপক প্রভাবিত রয়েছে। কাট্টি-বাট্টি ফ্লপ হওয়ার পর ছবির অফার প্রায় বন্ধ হয়ে যায়, এবং আর্থিক সংকটের মুখেও পড়েন এই দম্পতি। ধীরে ধীরে দুজনের সম্পর্কটা তিক্ত হয়ে উঠছিল, ঝগড়া বাড়ছিল। অনেক রকমভাবে বিয়ে বাঁচানোর চেষ্টা করেছে তাঁরা। তবে পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছায় যে মেয়েকে নিয়ে আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নেন অবন্তিকা।

বন্ধ করুন