বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > নাবালিকাকে ধর্ষণ ও অন্তঃসত্ত্বা করার অভিযোগ, গ্রেফতার TikTok তারকা
গ্রেফতার TikTok তারকা ভিগনেশ
গ্রেফতার TikTok তারকা ভিগনেশ

নাবালিকাকে ধর্ষণ ও অন্তঃসত্ত্বা করার অভিযোগ, গ্রেফতার TikTok তারকা

  • বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে নাবালিকার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন ও তাঁকে অন্তঃসত্ত্বা করবার অভিযোগ রয়েছে কেরলের টিকটক তারকার নামে। 

পালিয়ে গিয়েও পার পেলেন না, পুলিশের জালে কেরলেনর জনপ্রিয় টিকটক তারকা। রয়েছে নাবালিকাকে ধর্ষণ ও গর্ভবতী করবার অভিযোগ। অভিযুক্ত ভিগনেশ কৃষ্ণকে শনিবার কেরলের ত্রিসুর থেকে গ্রেফতার করল কেরল পুলিশ। এক নাবালিকাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারিরীক সম্পর্ক স্থাপন করা এবং তাঁকে অন্তঃসত্ত্বা করবার অভিযোগে কয়েকদিন ধরে পুলিশ খুঁজছিল ১৯ বছর বয়সী ভিগনেশকে। 

পসকো আইনের একাধিক ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে টিকটক তারকা অম্বিলি ওরফে ভিগনেশ কৃষ্ণর নামে। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম টিকটকের একের পর ভিডিয়ো বানিয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিল ভিগনেশ। সোশ্যাল মিডিয়াতেই বছরখানেক আগে ওই নাবালিকার সঙ্গে পরিচয় অভিযুক্তর। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেয় নাবালিকা নির্যাতিতার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছিল সে, কিন্তু ওই নাবালিকা অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে যোগাযোগ ছিন্ন করে সে, বেকায়দায় পরে চম্পট দেয়। এরপর ওই কিশোরীর মা-বাবা ভিগনেশের নামে পুলিশে অভিযোগ জানায়। 

ভিগনেশের খোঁজে তাঁর আত্মীয়-বন্ধুদের ফোন কলে আড়িপাতা শুরু করে পুলিশ। ইতিমধ্যেই জানা যায়, অভিযুক্ত পাসপোর্টের জন্য আবেদন জানিয়েছে। পুলিশের বুঝে নিতে অসুবিধা হয়নি, বিদেশে পালিয়ে গা ঢাকা দেবে সে। তবে পুলিশের তরফে ভিগনেশকে গ্রেফতার করতে জরবদস্ত ফন্দি আঁটা হয়। পরিবারকে খবর দেওয়া হয় ভিগনেশের পাসপোর্ট তৈরি হয়ে গেছে। এরপর ভিগনেশের বাবা ছেলের সঙ্গে দেখা করতে ত্রিসুর হাসপাতালে যান, পুলিশ পিছু ধাওয়া করে গ্রেফতার করে অভিযুক্তকে।

গত বছর এদেশে টিকটক নিষিদ্ধ হওয়ার আগে পর্যন্ত মূলত ওই প্ল্যাটফর্মেই ভিডিয়ো পোস্ট করে খ্যাতি পেয়েছিল ভিগনেশ। আপাতত শ্রীঘরে এই তরুণ। 

বন্ধ করুন