গত বছর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের আসরে কীর্তি সুরেশ, আয়ুষ্মান খুরানা, ভিকি কৌশল ও অক্ষয় কুমার (ছবি-আইএএনএস)
গত বছর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের আসরে কীর্তি সুরেশ, আয়ুষ্মান খুরানা, ভিকি কৌশল ও অক্ষয় কুমার (ছবি-আইএএনএস)

করোনার জেরে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত ৬৭তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার!

  • এখন পর্যন্ত জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের বিচারক প্যানেলও তৈরি করা সম্ভব হয়নি। করোনার জেরে থমকে গোটা প্রক্রিয়া। প্রতি বছর ৩রা মে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করা হয়।

বিশ্বজুড়ে করোনা সংকটে জেরে একের পর এক অনুষ্ঠান বাতিল হয়েই চলেছে। এবার সেই তালিকা যুক্ত হল জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও। ৬৭তম ন্যাশ্যাল ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড স্থগিত হয়ে গেল অনির্দিষ্টকালের জন্য। প্রতি বছর ৩রা মে গোটা দেশের চলচ্চিত্র জগতের কৃতীদের পুরস্কৃত করা হয়।

২০১২ সাল থেকে ৩রা মে তারিখকেই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদানের দিন হিসাবে বেছে নেওয়া হয়েছে কারণ ১৯১৩ সালের এই দিনেই ভারতের প্রথম পূর্ন দৈর্ঘ্যের ছবি রাজা হরিশচন্দ্র মুক্তি পেয়েছিল। যা তৈরি করেছিলেন ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনক দাদা সাহেব ফালকে।

সূত্রের খবর এখনও পর্যন্ত সরকারের তরফে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার নিয়ে কোনওরকম আলোচনাই হয়নি। কারণ করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলায় ব্যস্ত মন্ত্রী-আমলারা।

পরিচালক রাহুল রাওয়ালি,যিনি গত বছর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের বিচারক কমিটির অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি জানিয়েছেন, বিচারক প্যানেল তৈরির কথাবার্তা শুরুই হয়েছিল, এরমধ্যেই করোনা আর্বিভূত হয় এবং গোটা প্রক্রিয়া থমকে যায়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে কাজ এগোনো সম্ভব নয়’।

গত বছর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষণা এবং বিতরণে অনেক দেরি হয়েছিল লোকসভার নির্বাচনের জেরে। গত বছর অগস্ট মাসে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয় এবং ডিসেম্বরে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। সাধারণত এপ্রিল মাসে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপকদের নাম ঘোষণা হয় এবং মে মাসে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয় বিজয়ীদের হাতে।


বন্ধ করুন