বাড়ি > বায়োস্কোপ > মিমির চেষ্টায় ঘরে ফিরলেন রানাঘাটের নিঁখোজ বৃদ্ধ
পরিবারকে ফিরে পেলেন রানাঘাটের বৃদ্ধ 
পরিবারকে ফিরে পেলেন রানাঘাটের বৃদ্ধ 

মিমির চেষ্টায় ঘরে ফিরলেন রানাঘাটের নিঁখোজ বৃদ্ধ

  • রাস্তার ধারে পড়ে থাকা ওই বৃদ্ধের করুণ পরিস্থিতির কথা জানতে পেরে গত সপ্তাহেই তাঁকে শম্ভুনাথ পন্ডিত হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছিলেন মিমি।

সাধারণ মানুষের প্রয়োজনে , আর্তের সহায়তায় বরাবরই পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন যাদবপুরের অভিনেত্রী সংসদ মিমি চক্রবর্তী । আর এবার তাঁরই সৌজন্যের বদান্যতায় নিজের হারানো পরিবারের সাথে আবার মিলিত হলেন এক অসহায় বৃদ্ধ । আপাতত আবেগ ও আনন্দের আতিশয্যে নায়িকাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের ভাষা হারিয়েছেন ওই বৃদ্ধের পরিবার পরিজনেরা । পাশাপাশি শহর কলকাতার যে দুজন পথচলতি তরুণ তরুণীর উদ্যমে ছেঁড়া তার আবার জোড়া লাগলো , তাদেরকেও অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাঁরা ।

বিগত সপ্তাহের ঘটনা | আরাধনা চট্টোপাধ্যায় নামের এক তরুণী ও তাঁর বন্ধু জয়দীপ সেন শেক্সপিয়ার সারণি বাসস্টপের কাছে একজন অসুস্থ বৃদ্ধ প্রায় অচৈতন্য অবস্থায় পরে রয়েছেন। তাঁর এক পায়ে ক্ষতস্থান বিষিয়ে উঠে গ্যাংগ্রিন হয়ে গিয়ে রীতিমতো পোকা ধরে গিয়েছে ।  কী করবেন বুঝে উঠতে না পেরে সমস্ত ঘটনাটি ফেসবুকে পোস্ট করে আরাধনা সাহায্য চান সকলের কাছে ।

এই পোস্ট অভিনেত্রী সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর নজরে আসে । সঙ্গে সঙ্গে তিনি নিজে লালবাজারে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন । তাঁরই তত্ত্বাবধানে শনিবার শম্ভুনাথ পন্ডিত হাসপাতালে ভর্তি করা হয় রাস্তার ধারে পড়ে থাকা ওই বৃদ্ধের ।  এই খবর সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর বাড়ির লোক চিনতে পারে ওই বৃদ্ধকে।

নদিয়া জেলার রানাঘাটের গাঙনাপুর গ্রামের এক পরিবার মিমি এবং তাঁর টিমের সাথে যোগাযোগ করেন । তাঁরা জানান যে বৃদ্ধ ভদ্রলোককে অভিনেত্রী হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসার ব্যাবস্থা করে দিয়েছেন তিনি আর কেউ নন , তাঁদেরই হারিয়ে যাওয়া বৃদ্ধ কাকা, কুমুদ শীল । লকডাউন চলাকালীন তিনি কলকাতায় এসেছিলেন পেনশন তুলতে । কিন্তু আর তারপরে বাড়ি ফিরতে পারেননি । তারপর প্রায় একমাসেরও বেশি সময় ধরে নিখোঁজ ছিলেন ওই বৃদ্ধ । তাঁর আত্মীয় পরিজনরা শতচেষ্টাতেও সন্ধান পাননি তাঁর । শেষে সংবাদ মাধ্যমে সম্প্রচারিত খবরের মাধ্যমে বাড়ির বয়োজ্যেষ্ঠ সদস্যকে চিনতে পেরে এবং পরিস্থিতি অনুধাবন করে চমকে ওঠেন তাঁরা । 

পরিবারকে ফিরে পেয়ে আপ্লুত কুমুদ বাবু, শম্ভুনাথ পন্ডিত হাসপাতালে (নিজস্ব চিত্র)
পরিবারকে ফিরে পেয়ে আপ্লুত কুমুদ বাবু, শম্ভুনাথ পন্ডিত হাসপাতালে (নিজস্ব চিত্র)

অতঃপর ওই বৃদ্ধের ভাইপো কলকাতায় আসেন এবং সাংসদের টিম ও কলকাতা পুলিশের সহায়তায় কাকার সাথে হাসপাতালে দেখা করেন । অভিনেত্রীকে ভিডিও কলের মাধ্যমে ধন্যবাদ দেওয়ার সময় আবেগে ,আনন্দে চোখের জল আর বাধ মানেনি তাঁর । কাকার যথাযথ যত্ন নিতে এবং খেয়াল রাখার পরামর্শ দেন মিমি । যাদবপুরের সাংসদ জানান, তাঁদের বাড়ি ফেরার সমস্ত ব্যবস্থা করে দেবেন তিনি।

বৃদ্ধের নাতি সৌরভ শীলও সোশ্যাল মিডিয়ায় মিমি , তাঁর টিম ও কলকাতা পুলিশকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন । পাশাপাশি আরাধনা , তাঁর বন্ধু এবং যাঁরা যাঁরা তাঁর দাদুকে উদ্ধার করতে সাহায্য করেছেন , তাঁদের প্রত্যেককে জানিয়েছেন অশেষ আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ।

বন্ধ করুন