বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Mimi Chakraborty: ‘একটি মাছই গোটা সরোবর নোংরা করে দিতে পারে’! দুর্নীতি বিতর্কে কেন বললেন মিমি
মিমি চক্রবর্তী

Mimi Chakraborty: ‘একটি মাছই গোটা সরোবর নোংরা করে দিতে পারে’! দুর্নীতি বিতর্কে কেন বললেন মিমি

  • Mimi Chakraborty: সম্প্রতি এক বেসরকারি চ্যানেলে ইন্টারভিড দিতে গিয়ে এমনই মন্তব্য করেছেন মিমি চক্রবর্তী। কেন বলেছেন এই কথা?

সম্প্রতি তৃণমূলের বেশ কিছু সদস্য এভং নেতাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। সেই ঘটনা বাকি দলের উপর কতটা প্রভাব ফেলছে? বাকিদের ভাবমূর্তিও কি খারাপ হচ্ছে? এমনই প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছিল সাংসদ তথা অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে। প্রশ্নের উত্তরে কী বললেন তিনি?

হালে এক বেসরকারি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন মিমি চক্রবর্তী। সেখানেই তাঁকে এই ধরনের প্রশ্নের মুখে পড়ে হয়। সঞ্চালক তাঁকে জিজ্ঞাসা করেন, দলে অনেকের বিরুদ্ধেই যখন দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে, তখ মিমির ভাবমূর্তি কতটা নিরাপদ?

উত্তরে মিমি বলেছেন, তিনি দুর্নীতি করেননি। ফলে তাঁর গায়ে কাদা লাগবে না। তিনি মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়ের কারণে রাজনীতিতে এসেছেন। এবং মুখ্যমন্ত্রীর কথা মতোই কাজ করে যাবেন। ‘আমি কোনও দুর্নীতি করিনি, আমার গায়ে কোনও দাগ লাগবে না’ এটি বলেছেন তিনি। পাশাপাশি বলেছেন, সরাসরি তো বটেই কোনও দুর্নীতির সঙ্গে পরোক্ষভাবেও তাঁর কোনও সম্পর্ক নেই। 

সঞ্চালক এর পরেই জিজ্ঞাসা করেন, তবুও দলের কোনও এক জন সদস্যের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ উঠলেই, বাকিদের উপরও তার প্রভাব পড়ে। মিমি তখন বলেছেন, এ কথা সত্যি যে একটি মাছও গোচটা সরোবরকে নোংরা করে দিতে পারে। তবে তার পরেই তাঁর বক্তব্য, সেই নোংরা করার পদ্ধতি শুরু আগেই মাছটিকে ধরে ফেলা হয় এবং তাকে বাদ দেওয়া হয়। তবে তাঁ এই কথার পিছনে বিশেষ কারও সম্পর্কে ইঙ্গিত করা হয়েছে কি না, সে কথা পরিষ্কার করে বলেননি তিনি।

এর পরে সঞ্চালক প্রশ্ন করেন, ভবিষ্যতে তাঁকে কখনও বিজেপি-তে বা তৃণমূল কংগ্রেসের বিরোধী কোনও রাজনৈতিক দলে দেখা যাবে কি না। মিমি বলেছেন, এই প্রশ্নের উত্তর সময় দেবে। তবে বিজেপি প্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, দেশের নানা প্রান্তে বিজেপির নেতাদের বিরুদ্ধেও নানা প্রশ্ন উঠেছে। সেগুলির জবাব আগে পাওয়া দরকার। তার পরে এসব প্রশ্নের উত্তর দেওয়া যাবে। 

বন্ধ করুন