বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Abir Chatterjee: সব চুল সাদা হয়ে গিয়েছে, মাথার সামনে টাক! বাস্তবে এরকম দেখতে আবির চট্টোপাধ্যায়কে?

Abir Chatterjee: সব চুল সাদা হয়ে গিয়েছে, মাথার সামনে টাক! বাস্তবে এরকম দেখতে আবির চট্টোপাধ্যায়কে?

এটা আবীর চট্টোপাধ্যায়?

 আবির চট্টোপাধ্যায় তাঁর মায়াকুমারীর লুক শেয়ার করে নিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা দেখে চোখ কপালে উঠেছে নেট-নাগরিকদের। 

প্রস্থেটিক মেকআপের সঙ্গে কমবেশি সকলেই পরিচিত বর্তমানে। বলিউডে অমিতাভ থেকে কঙ্গনা, টলিউডে প্রসেনজিৎ থেকে শুভশ্রী, চেহারা বদলে চমকে দিয়েছেন অভিনেতারা বরাবর। তেমনটাই দেখা গেল ফের। এবার চমক এল আবির চট্টোপাধ্যায়ের তরফে। এটা যে আবির তা ধরাই যাচ্ছে না!

আবির চট্টোপাধ্যায় তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডলে এই ছবিটি পোস্ট করেছেন। বয়স যেন এক ধাক্কায় অনেকটা বেড়ে গিয়েছে। মাথার চুল সাদা। কপালের সামনে টাক পড়েছে। চোখে পুরনো দিনের স্টাইলে গোল্ডেন চৌক ফ্রেমের চশমা। সাদা কুর্তার সঙ্গে পরে আছেন বিস্কুট রঙের জহর কোট। মেকআপ আর্টিস্ট সোমনাথ কুন্ডুর সঙ্গে ছবিটি শেয়ার করেছেন তিনি। আরও পড়ুন: ‘সিনেমা নিয়ে অপ্রয়োজনীয় মন্তব্য’ বন্ধ করার নির্দেশ মোদীর, সাধু-সাধু করল বলিউড

ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘সেই জাদুকরের সঙ্গে যিনি মায়াকুমারী ছবিতে কানন কুমার এবং অহিরের আলাদা আলাদা লুক তৈরি করেছেন। উল্লাস সোমনাথ দা'। আপাতত আবিরের লুক দেখে চোখ কপালে নেট-নাগরিকদের। বলিউডের হ্যান্ডসাম হাঙ্কের সঙ্গে এটা কী হল! আরও পড়ুন: কাইজার-কারাগার দেখে বাংলাদেশি সিরিজের প্রেমে পড়েছেন? আসছে আরও ৮, ঘোষণা হইচই-এর

১৩ জানুয়ারি মুক্তি পেয়েছে 'মায়াকুমারী'। মায়াকুমারী আর কাননকুমারের জুটি একসময় জনপ্রিয় ছিল দর্শকদের মধ্যে। পর্দার বাইরেও সম্পর্ক ছিল এই দুজনের।  মায়াকুমারী ছিলেন বিবাহিত। আর তাই কানন কুমারের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভালোভাবে নেয়নি তখনকার সমাজ। নানা ধরনের কটুক্তি হত। পরবর্তীতে অভিনয় ছেড়ে সংসারে ফিরে যান মায়াকুমারী। এরপর আকষ্মিক মৃত্যু হয় অভিনেত্রীর। এরপর আকষ্মিক মৃত্যু হয় তাঁর। কী কারণ ছিল এর পিছনে তা এখনও রহস্যই। প্রসঙ্গত, কাননের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর সময় শীতল ভট্টাচার্যের স্ত্রী ছিলেন তিনি। 

ভারতীয় সিনেমার ১০০ বছরের উদ্‌যাপনে এসেছে অরিন্দম শীল পরিচালিত ছবি ‘মায়াকুমারী’। আবির চট্টোপাধ্যায় ছাড়াও রয়েছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, অরুণিমা ঘোষ, রজতাভ দত্ত, ইন্দ্রাশিস রায়-রা। ২০১৯-এ শ্যুটিং শেষ হয়ে গেলেও তিন বছর পর দর্শকের সামনে পৌঁছে দেওয়া গিয়েছে ছবিখানা। 

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন