বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'দিল্লির নাইটক্লাবে আমার হামশকল ঝামেলায় জড়িয়েছে’, জোর দিয়ে জানালেন অজয় দেবগণ
অজয় দেবগণ (ফাইল ছবি)
অজয় দেবগণ (ফাইল ছবি)

'দিল্লির নাইটক্লাবে আমার হামশকল ঝামেলায় জড়িয়েছে’, জোর দিয়ে জানালেন অজয় দেবগণ

  • ভাইরাল ভিডিয়ো নিয়ে সাফাই দিলেন অজয় দেবগণ। 

বলিউড অভিনেতাদের স্টাইল বা আদব-কায়দা নকল করে অনেকেই তাঁদের ‘ডুপ্লিকেট’ বা ‘হামশকল’ হিসাবে পরিচিতিও পান। শাহরুখ খান থেকে সঞ্জয় দত্ত, সলমন খান থেকে অজয় দেবগণ- এইসব বলিউড স্টারদের ‘হামশকল’দের সংখ্যা নেহাত কম নয়। তবে এর জেরেই বিরাট সমস্যায় জড়ালেন ‘সিংহম’ তারকা। রবিবার রাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় একটি ভিডিয়ো। যেখানে দিল্লির এক নাইট ক্লাবের বাইরে হাতাহাতি করতে দেখা যায়, দুই গোষ্ঠীকে। 

নেটিজেনদের অনেকেই দিল্লি এনরিআরে মধ্যরাতের সেই মারামারিতে খুঁজে পান অজয় দেবগণকে! হ্যাঁ, সেই ভিডিয়োয় সাদা শার্ট এবং ডেনিম জিনস পরা এক মদ্যপকে দেখে অনেকেরই মনে হয়েছে তিনি অজয় দেবগণ। সেই নিয়েই ব্যাপক শোরগোল। এর জেরেই যত গণ্ডোগোল। মিডিয়ায় চাঞ্চল্য ছড়াতেই আসরে নামেন অজয়। তিনি টুইট বার্তায় সাফাই দিয়ে বলেন, ‘আমার কোনও হামশকল ঝামেলায় জড়িয়েছে, আর মানুষজন আমাকে চিন্তিত হয়ে ফোন করেছে। শুধু পরিষ্কার করতে চাই, আমি কোনও ঝামেলায় জড়াইনি। আমার কোনও মারপিটে জড়ানোর খবর ভিত্তিহীন। হ্যাপি হোলি’।

এই পুরো কনফিউশন নিয়ে সোমবার আনুষ্ঠানিক বিবৃতি জারি করেছে টিম অজয় দেবগণ। সংবাদ মাধ্যমকে অভিনেতার ম্যানেজমেন্ট জানায়, গত ১৪ মাসে অজয় দেবগণ দিল্লি এনসিআরে পা পর্যন্ত রাখেননি। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে তানাজিঃ দ্য আনসাং ওয়ারিয়ারসের পোস্ট রিলিজ প্রমোশনের পর অজয় দেবগণ দিল্লিতে একবারের জন্যও পা রাখেননি। তাই মিডিয়াতে যে ঝামেলা ও মারপিটে জড়ানো সংক্রান্ত তথ্য উঠে আসছে তা একদম ভুয়ো ও ভিত্তিহীন। ময়দান এবং গঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ির শ্যুটিং অজয় দেবগণ আপতত মুম্বইয়েই রয়েছেন এবং গত ১৪ মাসে উনি দিল্লিতে যাননি। দয়া করে খবর প্রকাশ করবার আগে ফ্যাক্ট চেক করুন’।

দেখুন সেই ভাইরাল ভিডিয়ো-

দিল্লি এনসিআরের এই ভাইরাল ভিডিয়োয় দুই গোষ্ঠীর মধ্যে নাইট ক্লাবের বাইরে ঝামেলা নিয়ে পুলিশ জানিয়েছেন, দুই ব্যক্তি দিল্লির ওই পাব থেকে বার হওয়ার সময় পার্কিংয়ে একে অপরের গাড়িতে ঠুকে যায়।এর জেরেই ঝগড়া শুরু যা ব্যাপক আকার নেয়, এবং একটা সময় হাতাহাতিতে পৌঁছে যায়। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে পুলিশে খবর যায়, এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে দিল্লি পুলিশ।

বন্ধ করুন