বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > এনসিবির সামনে হাজিরা দিলেন না অর্জুন রামপাল, চাইলেন অতিরিক্ত সময়
অর্জুন রামপাল (ছবি সৌজন্য ইনস্টাগ্রাম rampal72)
অর্জুন রামপাল (ছবি সৌজন্য ইনস্টাগ্রাম rampal72)

এনসিবির সামনে হাজিরা দিলেন না অর্জুন রামপাল, চাইলেন অতিরিক্ত সময়

  • নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর কাছে ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় চাইলেন অভিনেতা অর্জুন রামপাল।

বুধবার এনসিবির সামনে হাজিরা দিলেন না অর্জুন রামপাল। মাদককাণ্ডে আজ, দ্বিতীয়বার কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রশ্নের মুখে পড়বার কথা ছিল অভিনেতার। মঙ্গলবার এনসিবির তরফে অর্জুনকে সমন পাঠানোর খবর নিশ্চিত করা হয়, তবে আজ সকালে অর্জুন এনসিবির কাছে হাজিরার জন্য বাড়তি কয়েকদিনের সময় চেয়ে নেন। অভিনেতা ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এনসিবির কাছে সময় চেয়েছেন। 

সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, আজ মাদককাণ্ডে অর্জুন রামপালের হাজিরা দেওয়ার কথা থাকলেও তিনি এনসিবির কাছে ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় চেয়ে নিয়েছেন'। 

বলিউডের মাদককাণ্ডে গত ১৩ নভেম্বর সাত ঘন্টা ধরে অভিনেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এনসিবির আধিকারিকরা। তার আগেই রামপালের বাড়িতে হানা দিয়ে এনসিবির আধিকারিকরা ১১টি বৈদ্যুতিন গ্যাজেট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে, বেশ কয়েকটি নিষিদ্ধ ওষুধও বাজেয়াপ্ত করে। মাদককাণ্ডে গত কয়েকমাস ধরেই এনসিবির কড়া নজরদারিতে রয়েছেন এই বলিউড অভিনেতা ও তাঁর পরিবার। অক্টোবর মাসে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর হাতে প্রথম গ্রেফতার হয় গ্যাব্রিয়েলা ডেমেট্রিয়াডেসের ভাই অ্যাগিসিলাওস। মাদকাকণ্ডে দু-বার জেরা করা হয়েছে  রামপালের প্রেমিকা তথা সন্তানের মা গ্যাব্রিয়েলা ডিমিট্রিয়াডিসকে।  মাদককাণ্ডে এনসিবির হাতে এসেছে নতুন তথ্য-প্রমাণ, তার ভিত্তিতে অর্জুন রামপালকে আবারও জেরা করা হবে।

গ্যাব্রিয়েলার ভাই ডেমেট্রিয়াডেসের সঙ্গে একাধিক মাদক পাচারকারীর যোগসাজশের হদিশ পেয়েছে এনসিবি। বলিউডের একাধিক তারকাকে মাদক পাচার করত ডেমেট্রিয়াডেস, মনে করছে এনসিবি। গত ১৮ অক্টোবর হাশিশসহ গ্রেফতার হন ডেমেট্রিয়াডেস। তার কাছে থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল অ্যালপারাজোলাম (এক ধরণের নিষিদ্ধ ট্যাবলেট)। জানা গিয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুত মামলার সঙ্গে জড়িত মাদক পাচারকারীদের সঙ্গে সরাসরি যোগ রয়েছে অ্যাগিসিলাওসের। নভেম্বরের শুরুতে জামিনে ছাড়া পেয়েছিল অ্যাগিসিলাওস। তবে মুক্তির কয়েকঘন্টার মধ্যেই অপর এক মাদককাণ্ডে ফের অ্যাগিসিলাওসকে হেফাজতে নেই নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো।

বন্ধ করুন