বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মায়ের মৃত্যু যন্ত্রণা বুকে চেপেই ২৪ ঘন্টার মধ্যে শ্যুটিং ফ্লোরে কাঞ্চন!
কাঞ্চন মল্লিকের পেশাদারিত্বকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন নেটিজেনরা (ছবি সৌজন্যে-রুদ্রনীল ঘোষ)
কাঞ্চন মল্লিকের পেশাদারিত্বকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন নেটিজেনরা (ছবি সৌজন্যে-রুদ্রনীল ঘোষ)

মায়ের মৃত্যু যন্ত্রণা বুকে চেপেই ২৪ ঘন্টার মধ্যে শ্যুটিং ফ্লোরে কাঞ্চন!

  • শনিবার মা'কে হারিয়েছেন কাঞ্চন মল্লিক। রবিবার পূর্ব নির্ধারিত শেডিউল মেনেই শ্যুটিং ফ্লোরে অভিনেতা। 

কাঞ্চন মল্লিক,টলিগঞ্জের অন্যতম সেরা কৌতুক অভিনেতার তালিকায় একদম প্রথম সারিতে রয়েছে তাঁর নাম। তাঁর পেশাদার মনোভাবেরও সবসময়ই তারিফ করে থাকেন সহকর্মীরা। একজন দক্ষ অভিনেতার মতোই তিনি বিশ্বাস করেন পরিস্থিতি যাই হোক ‘দ্য শো মাস্ট গো অন’। আজীবন এই নীতিকে মূলমন্ত্র করেই বেঁচেছেন-তাই ব্যক্তিগত শোক ভুলে রবিবারও শ্যুটিং ফ্লোরে হাজির কাঞ্চন মল্লিক। 

শনিবারই মা'কে হারিয়েছেন কাঞ্চন। মায়ের মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটপট করছে প্রাণ কিন্তু আগে থেকেই ঠিক রয়েছে শ্যুটিংয়ের শেডিউল। করোনা সংকটের মধ্যেই নানান অসুবিধার মধ্যে শ্যুটিং শুরু হয়েছে টলিপাড়ায়, তাই ব্যক্তিগত শোকের জন্য সেই শেডিউলে কোনওরকম হেরফের হোক তা চাননি কাঞ্চন। এদিন কাঞ্চনের বন্ধু অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ ফেসবুক পোস্টে এই খবর শেয়ার করে নেন। লেখেন, ‘একজন অভিনেতা,কাঞ্চন মল্লিক। যার মা কাল পৃথিবী ছেড়ে চলে গেলেন। হাউহাউ করে কান্নায় ভেংগে (ভেঙে) পড়ল কাঁধে মাথা রেখে। কিন্তু, জীবিকার কারণে মানুষকে হাসাতে আজ সকাল থেকে সে শুটিং ফ্লোরে।যন্ত্রণা ভোলার জন্য ২৪ ঘন্টাও কাটেনি। হ্যাঁ অভিনেতারা ঠিক সহজ মানুষ নয়। হয়ত অন্য কিছু’।

রুদ্রনীলের ফেসবুক পোস্ট 
রুদ্রনীলের ফেসবুক পোস্ট 

সত্যি অভিনেতারা বোধহয় এইরকমই হন। রুদ্রনীলের ফেসবুক পোস্টে কাঞ্চনের উদ্দেশ্যে কমেন্টের বন্যা। কেউ সমবেদনা জানাচ্ছেন মাতৃহারা কাঞ্চনকে তো কেউ কুর্নিশ জানাচ্ছে তাঁর পেশাদারিত্বকে। কাজকে ভালোবেসে কাজ করে যাওয়াটাই একজন অভিনেতার আসল ধর্ম, সেটা ভালোভাবেই বুঝিয়ে দিলেন কাঞ্চন মল্লিক। 

বন্ধ করুন