সলমন খান (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
সলমন খান (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

বাবা-মা'র খোঁজখবর নিতে ৬০ দিন পর মুম্বই ফিরলেন সলমন খান

  • মঙ্গলবার কয়েকঘন্টার জন্য মুম্বই পৌঁছেছিলেন সলমন।পরে পানভেলের ফার্মহাউসে ফিরে গেছেন ভাইজান। 

লকডাউনে শহরের কোলাহল থেকে দূরে পানভেলের ফার্মহাউসেই পরিবারের বেশকিছু সদস্য ও বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছিলেন সলমন খান। ৬০ দিন খামারবাড়িতে কাটানোর পর মঙ্গলবার মুম্বই ফেলেন ভাইজান। মুম্বই ফেরার যাবতীয় অনুমতি নিয়েছিলেন সলমন খান। বাবা-মা’র খোঁজখবর নিতেই বান্দ্রার গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে  পৌঁছেছিলেন অভিনেতা।

মুম্বই মিররের রিপোর্ট অনুযায়ী, বেশ কয়েক ঘন্টা মুম্বইতে কাটিয়ে পানভেল ফার্মহাউসে ফিরে গিয়েছেন সলমন।সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার সব নিময়ই মেনে চলেছেন সলমন খান। লকডাউন ঘোষণা হওয়ার আগেই দুই বোন অর্পিতা খান শর্মা এবং অলভিরা খান অগ্নিহোত্রীর পরিবার এবং বান্ধবী জ্যাকলিন ফার্নান্দিজ,ওয়ালুসচা ডিসুজা,ইউলিয়া ভান্তুর এবং ভাইপো নির্বান খানের সঙ্গে পানভেলের ফার্মহাউসে পৌঁছেছিলেন সলমন। এরপর সেখানেই আটকে যান তারকা।

লকডাউনেও চুপচাপ বসে থাকেননি ভাইজান। পানভেলের ফার্মহাউসে বসেই তৈরি করে ফেলেছেন দুটি মিউজিক ভিডিয়ো-প্যায়ার করোনা এবং তেরে বিনা। সলমনের দুটি সিঙ্গলসই রিলিজ করেছে তাঁর ইউটিউব চ্যানেলে। করোনা সংক্রান্ত সব গাইডলাইন মেনেই তৈরি হয়েছে এই মিউজিক ভিডিয়োগুলি। দ্বিতীয় সিঙ্গলস তেরে বিনায় দেখা মিলেছে জ্যাকলিন ফার্নান্দিজেরও। শোনা যাচ্ছে আরও একটি মিউজিক ভিডিয়োর প্ল্যানিং রয়েছে ভাইজানের। যেখানে সল্লু মিঁয়ার সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতে দেখা যাবে ওয়ালুসচা ডিসুজাকে। 

লকডাউনে ইন্ডাস্ট্রির দিনমজুরদের পাশেও দাঁড়িয়েছেন ভাইজান। ফেডারেশন সূত্রে জানা গিয়েছে সলমন তাঁর সংস্থা বিয়িং হিউম্যানের মাধ্যমে প্রায় ৩০ হাজার টেকনিশিয়ান,জুনিয়ার আর্টিস্টদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা পাঠাচ্ছেন। পানভেল ফার্মহাউসের আশপাশের ১০০০ পরিবারকেও প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছেন সলমন খান। 

বন্ধ করুন