বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > গায়ের রঙ নিয়ে কটূক্তির শিকার 'দেশের মাটি'র নোয়া, পাশে পেলেন অন্বেষা, মানসীকে
শ্রুতি দাস (ছবি ফেসবুক)
শ্রুতি দাস (ছবি ফেসবুক)

গায়ের রঙ নিয়ে কটূক্তির শিকার 'দেশের মাটি'র নোয়া, পাশে পেলেন অন্বেষা, মানসীকে

  • কটূক্তির জবাব দিতে পাশে পেলেন আরো দুই অভিনেত্রী তথা ইন্ডাস্ট্রির সহকর্মী অন্বেষা হাজরা এবং মানসী সিং-কে।

কিছুদিন করোনায় আক্রান্ত অভিনেত্রী শ্রুতি দাস। কিন্তু এরই মধ্যে তাঁর গায়ের রং নিয়ে কটূক্তি যেন কিছুতেই বন্ধ করছেন না একাংশের নেটিজেনরা। বার বার বর্ণ বৈষ্যমের শিকার হচ্ছেন তিনি। যদিও এবার এই কটূক্তির জবাব দিতে পাশে পেলেন আরো দুই অভিনেত্রী তথা ইন্ডাস্ট্রির সহকর্মী অন্বেষা হাজরা এবং মানসী সিং-কে।

প্রসঙ্গত, শ্রুতির করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর দিন কয়েক আগে একাধিক সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। খবর পড়ে উদ্বিগ্ন অনুরাগীরা অভিনেত্রীর দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন। তবে সেই খবরের কমেন্ট বক্সে দুই নেটিজেন শ্রুতির গায়ের রঙ নিয়ে কটূক্তি করেন।  এক জন লেখেন, ‘বাঁচা গেল। আর মুখ দেখতে হবে না’। অপর আরেক জন কমেন্টে লেখেন, ‘না খেয়ে মর’! আর এহেন মন্তব্যে শ্রুতর পাশে এসে দাঁড়াতে দেখা গেল টেলি পাড়ার আরো দুই অভিনেত্রীকে।

প্রথম জনের উদ্দেশ্যে অভিনেত্রী অন্বেষা হাজরা লেখেন, ‘একজন অসুস্থ। যাঁদের কোভিড হয়েছে, এক মাত্র তাঁরাই জানেন, কী যন্ত্রণা! আপনি তো নিজেও একজন মহিলা, এই ধরণের অযৌক্তিক কথা বলেন কীভাবে। তাহলে আপনি বোধহয় ‘মহিলা’ হয়েই রয়ে গেছেন মানুষ হতে পারেননি।’ অন্য আরেক ব্যক্তিকে অন্বেষা লেখেন, ‘আপনার সন্তান, মা, বাবা বা কাছের কারো সঙ্গে এমনটা হলে কেমন লাগত?’ পাশাপাশি ‘দেশের মাটি’ ধারাবাহিকের মানসী সিংও শ্রুতিকে সাপোর্ট করে জানিয়েছেন, ‘আমি গর্বিত ওকে নিয়ে, ও নিজের পরিচয় পরিচিত হবে। গায়ের রঙে নয়’।

যদিও অন্বেষার এগিয়ে সরব হওয়ার বিষয়, পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন শ্রুতি। তিনি একটি পোস্ট শেয়ার করে আরো লিখেছেন, এক পেশায় এইভাবে সহমর্মিতা তিনি খুব কম দেখেছেন। সহকর্মীর বাইরে একে অপরের যে বন্ধু সেই কথাও জানিয়েছেন শ্রুতি। অন্বেষার পাশাপাশি অসংখ্য নেটিজেনরা সমর্থন জানিয়েছেন শ্রুতিকে।

বর্তামানে স্টার জলসায়  ‘দেশের মাটি’র ‘নোয়া’র চরিত্রে অভিনয় করছেন শ্রুতি দাস। অন্যদিকে, জি বাংলায় আগামী ১২ এপ্রিল থেকে শুরু হচ্ছে অন্বেষার নতুন ধারাবাহিক ‘আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়’।

বন্ধ করুন