বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Siddharth-Saina: সাইনার উদ্দেশে কুরুচিকর মন্তব্য, অভিনেতা সিদ্ধার্থের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ মহিলা কমিশনের
সাইনাকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য সিদ্ধার্থের
সাইনাকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য সিদ্ধার্থের

Siddharth-Saina: সাইনার উদ্দেশে কুরুচিকর মন্তব্য, অভিনেতা সিদ্ধার্থের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ মহিলা কমিশনের

  • অলিম্পিক পদক জয়ী ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার সাইনা নেহেওয়ালের বিরুদ্ধে ‘যৌন ইঙ্গিতপূর্ণ’ মন্তব্য করায় প্রশ্নের মুখে রং দে বসান্তি খ্যাত অভিনেতা। 

ফের নতুন বিতর্কে অভিনেতা সিদ্ধার্থ। মোদী বিরোধী অবস্থানের জন্য হামেশাই চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন ‘রং দে বসান্তি’ খ্যাত এই তামিল অভিনেতা। এবার অলিম্পিক পদক জয়ী ব্যাডমিন্টন তারকা সাইনা নেহেওয়ালের উদ্দেশে ‘যৌন ইঙ্গিতপূর্ণ’ টুইটের অভিযোগ উঠল সিদ্ধার্থের বিরুদ্ধে। এই বিষয় নিয়ে তোলপাড় টুইটার, নারীবাদীদের রোষের মুখে অভিনেতা। অবশেষে নড়চড়ে বসেছে জাতীয় মহিলা কমিশন। 

এদিন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ার পার্সন রেখা শর্মা প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দেন সিদ্ধার্থের এই টুইট নিয়ে। রেখা শর্মা লেখেন, ‘একে উপযুক্ত পাঠ দিতেই হবে। টুইটার ইন্ডিয়া এই লোকটা এখনও কেন আপনাদের প্ল্যাটফর্মে রয়েছে? সংশ্লিষ্ট পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করছি’। এই টুইটের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই জাতীয় মহিলা কমিশনের ভ্যারিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে জানানো হয়, ‘জাতীয় মহিলা কমিশন স্বতঃপ্রণোদিতভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। চেয়ার পার্সন ডিজিপি মহারাষ্ট্রকে নির্দেশ দিয়েছেন বিষয়টি তদন্ত করে খতিয়ে দেখে এই বিষয়ে এফআইআক দায়ের করবার। মহিলা কমিশন ইতিমধ্যেই টুইটার ইন্ডিয়ার কাছে আবেদন রেখেছে অভিনেতা সিদ্ধার্থের অ্যাকাউন্ট ব্লক করবার জন্য’। 

কী থেকে বিতর্কের সূত্রপাত?

পঞ্জাবে প্রধানমন্ত্রীর কনভয় আটকানোর ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে টুইট করেছেন দেশের প্রখ্যাত ক্রীড়াবিদ তথা বিজেপি নেত্রী সাইনা। সাইনা লেখেন, ‘কোনো রাষ্ট্র নিজেকে নিরাপদ বলে দাবি করতে পারে না যদি তার নিজের প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার সঙ্গে আপোস করা হয়। আমি কঠোর ভাষায়, নৈরাজ্যবাদীদের দ্বারা প্রধানমন্ত্রী মোদীর উপর কাপুরুষোচিত হামলার নিন্দা জানাই'। এই টুইট রি-টুইট করে সিদ্ধার্থ লেখেন, ‘‍বিশ্বের subtle cock চ্যাম্পিয়ন… ঈশ্বরকে ধন্যবাদ আমাদের ভারতের রক্ষক আছে।’

সিদ্ধার্থের বিতর্কিত টুইট
সিদ্ধার্থের বিতর্কিত টুইট

সাইনার প্রতি সিদ্ধার্থের এই টুইট নক্কারজনক এবং কুরুচিপূর্ণ বলেই মনে করছেন নেটিজেনরা। কারণ কক শব্দটি নিয়ে পুরুষের যৌন অঙ্গকে নির্দেশ করা হয়, যেভাবে shuttlecock-এর বদলে subtle cock শব্দটি ব্যবহার করেছেন তাতেই চটেছেন অনেকে। ইচ্ছাকৃতভাবে সাইনাকে যৌনতাপূর্ণ ইঙ্গিত করে অপমান করার চেষ্টা করেছেন অভিনেতা দাবি টুইটারের একটা বড় অংশের। 

যদিও সিদ্ধার্থের সাফাই পুরোটাই নেহাত ভুল বোঝাবুঝি তিনি নিজের ডিফেন্সে ‘কক অ্যান্ড বুল’-এর প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন। ‘subtle cock’ শব্দের মধ্যে অন্য কোনও অর্থ খুঁজতে যাওয়া ‘অনুচিত’ বলে উল্লেখ করেন সিদ্ধার্থ। তিনি বলেন, ‘কাউকে অপমান করবার কোনও উদ্দেশ্য ছিল না, অশ্লীল কিছু আমি বলিনি। এইটুকুই বলব’। 

বন্ধ করুন